১০ প্রকল্প অনুমোদন একনেকে, ব্যয় ৮৮০৪ কোটি টাকা

0

৮ হাজার ৮০৪ কোটি ১০ লাখ টাকা ব্যয় সম্বলিত ১০টি প্রকল্প অনুমোদন দিয়েছে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি (একনেক)।

মঙ্গলবার (২২ ফেব্রুয়ারি) প্রধানমন্ত্রী এবং একনেক-এর চেয়ারপারসন শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত একনেক-এর সভায় এ অনুমোদন দেওয়া হয়।

শেরে বাংলা নগরস্থ এনইসি সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় গণভবনে থেকে ভিডিও কনফারেন্সিং সংযুক্ত হন একনেক চেয়ারপারসন।

এর মধ্যে সরকারি অর্থায়ন ৮ হাজার ৫১৫ কোটি ৮৭ লাখ টাকা, বৈদেশিক অর্থায়ন ১৬৭ কোটি ৪৫ লাখ টাকা ও সংস্থার নিজস্ব অর্থায়ন ১২০ কোটি ৭৮ লাখ টাকা।

অনুমোদিত ১০ টি প্রকল্পের মধ্যে ৮টি নতুন প্রকল্প এবং বাকি দুইটি সংশোধিত প্রকল্প।

নতুন আটটি প্রকল্প হলো-
ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের ১ হাজার ৫৯ কোটি ১০ লাক টাকার ’৫জি’-র উপযোগীকরণে বিটিসিএল-এর ‘অপটিক্যাল ফাইবার ট্রান্সমিশন নেটওয়ার্ক উন্নয়ন প্রকল্প’, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের ২১৪ কোটি ৪৮ লাখ টাকার ‘১৫টি সরকারি হাসপাতালে হাসপাতাল ভিত্তিক চিকিৎসা বর্জ্য ব্যবস্থাপনা’ প্রকল্প, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের ৫৫৩ কোটি ৮৪ লাখ টাকার ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান নভোথিয়েটার, খুলনা স্থাপন’ প্রকল্প, মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ২৭১ কোটি ৮৩ লাখ টাকার ‘ইনট্রিগ্রেটেড কমিউনিটি বেইজড সেন্টার ফর চাইল্ড কেয়ার, প্রটেকশন অ্যান্ড সুইম-সেইফ ফ্যাসিলিটিজ’ প্রকল্প।

পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের ২টি প্রকল্প যথাক্রমে ৮২৬ কোটি ৪৯ লাখ টাকার ‘বরগুনা জেলাধীন পোল্ডার ৪১৬ এ, ৪১৬ বি ও ৪১৭ এ পুনর্বাসন এবং বেতাগী শহরসহ অন্যান্য ঝুঁকিপূর্ণ অংশ বিষখালী ও পায়রা নদীর ভাঙ্গন হতে প্রতিরক্ষা’ প্রকল্প এবং ১ হাজার ৯২ কোটি ৭০ লাখ টাকার ‘ভোলা জেলার মুজিব নগর ও মনপুরায় উপকূলীয় বাঁধ পুনর্বাসন, নিস্কাশন ব্যবস্থার উন্নয়ন ও তীর সংরক্ষণ (১ম পর্যায়)’ প্রকল্প, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের ১২২ কোটি ৭২ লাখ টাকার ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্পনগর-এ ২টি মর্ডান ফায়ার স্টেশন স্থাপন’ প্রকল্প এবং বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের ৬১৯ কোটি ৩০ লাখ টাকার ‘স্মার্ট প্রি-পেইমেন্ট মিটারিং প্রজেক্ট ইন ডিসট্রিবিউশন জোনস অব বিপিডিবি’ প্রকল্প।

সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের ২টি প্রকল্প সংশোধন করে অনুমোদন দেওয়া হয়।

এ দুইটি প্রকল্প হলো ‘সাসেক সড়ক সংযোগ প্রকল্প জয়দেবপুর-চন্দ্রা-টাঙ্গাইল-এলেঙ্গা সড়ক (এন-৪) ৪-লেন মহাসড়কে উন্নতীকরণ (৩য় সংশোধিত)’ প্রকল্প এবং ‘ভূমি অধিগ্রহণ ও ইউটিলিটি স্থানান্তর প্রকল্প সাপোর্ট টু ঢাকা (কাঁচপুর)-সিলেট-তামাবিল মহাসড়ক চার লেনে উন্নীতকরণ এবং উভয় পাশে পৃথক সার্ভিস লেন নির্মাণ (১ম সংশোধিত)’ প্রকল্প।

একনেক সভার কার্যক্রমে পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নান, তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক, বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ. ম. রেজাউল করিম, পরিবেশ, বন ও জলবায়ু মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন, ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী এবং সংশ্লিষ্ট মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রীরা অংশগ্রহণ করেন।

এছাড়া সভায় সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিব এবং ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

জয়নিউজ/পিডি

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...