চিলির মাঠে আর্জেন্টিনার দাপুটে জয়

0

মাঠে লিওনেল মেসি নেই, ডাগআউটে নেই কোচ লিওনেল স্ক্যালোনি। তবুও আন্তর্জাতিক ফুটবলে টানা ২৮ ম্যাচ ধরে অপরাজিত থাকার তকমা ধরে রেখেছে কোপাজয়ী আর্জেন্টিনা। চিলির বিপক্ষে বিশ্বকাপ বাছাইয়ের ম্যাচে ২-১ গোলের জয় পেয়েছে ডি মারিয়ারা।

ঘরের মাঠে দুইবারের বিশ্বজয়ীদের বলতে গেলে কাঁপন ধরিয়ে দিয়েছে চিলি। বারবার সুযোগ মিস না করলে এগিয়ে থেকেই শেষ করতে পারতো স্বাগতিকরাই।

তবে ম্যাচের শুরুর দিকে চিলির বিপক্ষে আধিপত্য বিস্তার করে খেলতে থাকে আর্জেন্টিনা। নবম মিনিটেই দৃষ্টিনন্দন শটে দলকে এগিয়ে নেন অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া। মাঝ মাঠ থেকে একাই বল টেনে নিয়ে ডি বক্সের বাইরে থেকে জরালো শটে চিলির জাল ভেদ করেন এই স্ট্রাইকার।

নিজেদের ঘরের মাঠে পিছিয়ে পড়ার পর সমতায় ফিরতে মরিয়া হয়ে ওঠে চিলি।

ম্যাচের ২০ তম মিনিটে কাঙ্ক্ষিত সাফল্যের দেখা পায় স্বাগতিকরা। প্রতি আক্রমণে ডি বক্সের বাইরে থেকে নুনেজের বাড়ানো শট হেডের সাহায্যে প্রতিপক্ষের জালে জড়ান ব্রেরেতন দিয়াজ। অবশ্য তাদের মুখে বেশিক্ষণ হাসি থাকেনি। ৩৪তম মিনিটে চিলির গোলরক্ষক ব্রাভোর ভুলে লিড পায় আলবিসেলেস্তেরা। ডি বক্সের বাইরে থেকে নেয়া জোরালো শট ঠেকিয়ে দিলেও আটকে রাখতে পারেননি ব্রাভো। বল পেয়ে যান লাওতারো মার্টিনেজ। সহজ গোলটি করতে তিনি কোনো ভুল করেননি।

এমন ভুল করায় ব্রাভোকে সঙ্গে মাঠ থেকে তুলে নেন কোচ লাসার্টে। বিরতিতে যাওয়ার আগে সমতায় ফিরতে পারতো চিলি। পাওলো দিয়াজের জোরালো শট ঠেকিয়ে দিয়ে দলকে বিপদমুক্ত রাখেন এমিলিয়ানো মার্টিনেজ। ২-১ গোলের ব্যবধানে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় আর্জেন্টিনা।

বিরতির পর আরও আক্রমণাত্মক হয়ে ওঠে চিলি। তবে ব্যবধান আর কমাতে পারেনি তারা। তুমুল উত্তেজনাপূর্ণ ম্যাচটির দ্বিতীয়ার্ধে গোলের দেখা পায়নি কোনো দলই।

কাতার বিশ্বকাপের টিকিট আগেই নিশ্চিত করেছে আর্জেন্টিনা। তবে চিলির বিপক্ষে মাঠে নামার আগে দুঃসংবাদ শুনতে হয়েছিল আলবিসেলেস্তেদের। এমনিতেই দলপতি লিওনেল মেসি নেই, তারওপর মরার ওপর খাঁড়ার ঘা হয়ে আসে আর্জেন্টাইন কোচ লিওনেল স্ক্যালোনির করোনায় আক্রান্তের খবর। চিলির বিপক্ষে ডাগআউটে ছিলেন না তিনি।

বিশ্বকাপ বাছাইয়ে ১4 ম্যাচে ১১ জয় ও ৩ ড্রয়ে ৩৬ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষে ব্রাজিল। সমান ম্যাচে ৯ জয় ও ৫ ড্রয়ে ৩২ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দুইয়ে আর্জেন্টিনা। ১৫ ম্যাচে ৭ জয় ও ৩ ড্রয়ে ২৪ পয়েন্ট নিয়ে কনমেবল থেকে কাতার যাত্রার পথে এক পা দিয়ে রেখেছে ইকুয়েডর।

জয়নিউজ/পিডি

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...