৮ প্রতিষ্ঠানকে ৯১ হাজার টাকা জরিমানা

পঁচা-বাসি খাবার ও নিষিদ্ধ ওষুধ বিক্রি

0

পঁচা-বাসি খাবার ও নিষিদ্ধ ওষুধ বিক্রি করার দায়ে নগরের ৮টি প্রতিষ্ঠানকে ৯১ হাজার টাকা জরিমানা করেছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। বৃহস্পতিবার (১১ অক্টোবর) নগরের ইপিজেড, পতেঙ্গা ও চকবাজার থানায় অভিযান চালিয়ে এ জরিমানা আদায় করা হয়।

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর, চট্টগ্রাম বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক নাসরিন আক্তার জানান, পঁচা-বাসি কেক ও খাবার, নিষিদ্ধ ওষুধ, মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য ও ওষুধ রাখার দায়ে ৮টি প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা করা হয়েছে। এসময় মেয়াদবিহীন কাটা ওষুধ ধ্বংস করা হয়।

তিনি আরো জানান, ইপিজেডের ঢাকা বেকারিকে সংবাদপত্রের কাগজ ব্যবহার করে কেক প্রস্তুত করায় ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এ সময় ২৫ কেজি কেক ধ্বংস করা হয়। মেসার্স করিম এন্ড সন্সকে মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য বিক্রয়ের জন্য ৫ হাজার এবং দি হক ফার্মেসিকে মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ সংরক্ষণ করায় ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

চকবাজার ও ইপিজেড  এলাকায় অভিযানে নেতৃত্ব দেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর, চট্টগ্রাম বিভাগীয় কার্যালয় এর সহকারী পরিচালক বিকাশ চন্দ্র দাস। তিনি জানান, বাসি খাবার সংরক্ষণ, সংবাদপত্রের কাগজ ব্যবহার এবং নোংরা অস্বাস্থ্যকর পরিবেশের জন্য মেহেদিবাগের ছুফিয়া হোটেলকে ৮ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া মেয়াদোত্তীর্ণ প্যাকেটজাত খাবার বিক্রি করায় কদমতলীর আলম হোটেলকে ৮ হাজার জরিমানা করা হয়। বিক্রয় নিষিদ্ধ ওষুধ বিক্রি ও সংরক্ষণ করায় ইপিজেড থানার সিমেন্ট ক্রসিংয়ের নিউ স্টার ফার্মেসিকে ২০ হাজার জরিমানা করা হয়।

পতেঙ্গা থানা এলাকায় জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর, চট্টগ্রাম জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক  মুহাম্মদ হাসানুজ্জামানের নেতৃত্বে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় তিনি ক্যাফে সাহারা এন্ড রেস্টুরেন্টকে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্যদ্রব্য উৎপাদন ও সংরক্ষণ করায় ৫ হাজার জরিমানা করেন। এ সময় কাটগড় এলাকার শফি এন্ড সন্স ফার্মেসিকে সরকারি ওষুধ, বিক্রয় নিষিদ্ধ ওষুধ, মেয়াদোর্ত্তীণ ও মেয়াদবিহীন কাটা ওষুধ বিক্রয় ও সংরক্ষণ করায় ২০ হাজার জরিমানা করা হয়। ধ্বংস করা হয় পাঁচ হাজার টাকার ওষুধ ।

জয়নিউজ/জুলফিকার

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...