নির্বাচনি সহিংসতায় প্রাণ গেল ৬ জনের

0

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপে ৮৩৫টি ইউনিয়নে আজ (১১ নভেম্বর) সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ করা হয়েছে। এ সময়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে সহিংসতায় ৬ জন নিহত হয়েছেন।

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রামের ফটিকছড়িতে দুই মেম্বার পদপ্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে মোহাম্মদ শফি নামে স্থানীয় এক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছে কয়েকজন। দুপুরে লেলাং ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের গোপালঘাটা আনন্দবাজার এলাকায় এ সংঘর্ষ হয়।

ফটিকছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রবিউল ইসলাম জানিয়েছেন, সংঘর্ষ চলাকালে শফির বুকে ছুরিকাঘাত করা হয়। এতে তিনি মারা যান।

কক্সবাজার: কক্সবাজার সদর উপজেলার খুরুশকুল ইউনিয়নে ভোট চলাকালে সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে আকতারুজ্জামান (৩৫) নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন ৬ জন।

সকালে খুরুশকুল ইউনিয়নের তেতৈয়া এলাকায় এ সংঘর্ষ হয়। এদিকে সংঘর্ষের পরপরই খুরুশকুল ইউপি নির্বাচনে ভোটগ্রহণ স্থগিত রেখেছেন নির্বাচনে দায়িত্ব পালনকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা।

নিহত আকতারুজ্জামান খুরুশকুল ১ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার পদপ্রার্থী (বর্তমান মেম্বার) শেখ কামালের ছোট ভাই। কক্সবাজার র‌্যাব-১৫-এর সিপিএসসি কমান্ডার মেজর মেহেদী হাসান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

নরসিংদী: নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলার প্রত্যন্ত চরাঞ্চল বাঁশগাড়ীতে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী ও স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে তিনজন নিহত হয়েছেন। ভোট গ্রহণ শুরুর আগেই এ সংঘর্ষ হয়। নিহত সালাউদ্দিন ও জাহাঙ্গীর স্বতন্ত্র প্রার্থী জাকির হোসেনের সমর্থক এবং দুলাল মিয়া আওয়ামী লীগের (নৌকা) প্রার্থী আশরাফুল হকের সমর্থক।

কুমিল্লা: কুমিল্লার মেঘনা উপজেলার মানিকারচর ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে আমিরাবাদ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে বহিরাগতদের হামলায় গুরুতর আহত একজন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। গুলিবিদ্ধ অন্য দুজনের অবস্থাও আশঙ্কাজনক।

মেঘনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক সালাউদ্দিন মোল্লা এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। নিহত শাওন আহমেদ (২৫) এ উপজেলার ভল্লবেরকান্দি গ্রামের মোবারক হোসেনের ছেলে।

জয়নিউজ/এসআই
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...