চীন থেকে এলো আরও ১০ লাখ ডোজ টিকা

0

দেশে পৌঁছেছে চীনের উপহারের আরও ১০ লাখ ডোজ টিকা। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বোয়িং ৭৮৭-৯ ড্রিমলাইনার চীন থেকে কোভিড টিকা ও সিরিঞ্জ নিয়ে হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করেছে।

বিমানের চার্টার্ড ফ্লাইট বিজি-৫০৬৫ শুক্রবার (১৩ আগস্ট) চীনের তিয়ানজিন বিনহাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে টিকা নিয়ে সন্ধ্যায় ৬টায় ঢাকা পৌঁছে। মোট ৫৭ টি বাক্সে সিনোফার্মের ১০ লাখ ডোজ কোভিড টিকা ও ৩১৩ টি কার্টনে ৪ দশমিক ১ টন সিরিঞ্জ এসেছে।

আগামী ১৪ আগস্ট সকাল ১০টায় বিমানের আরেকটি চার্টার্ড ফ্লাইট চীনের তিয়ানজিন বিনহাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের উদ্দেশে ছেড়ে যাবে। চীন থেকে কোভিড টিকা ‍নিয়ে ফিরতি ফ্লাইটটি শনিবার রাত ১১টা ৪৫ মিনিটে হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করার কথা রয়েছে।

মোট ৭০ লাখ ডোজ সিনোফার্মের কোভিড টিকা সাতটি ফ্লাইটের মাধ্যমে চীন থেকে দেশে এনেছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স। এছাড়া প্রবাসী বাংলাদেশিদের উপহার হিসেবে পাঠানো ২৫০টি ভেন্টিলেটর বিনামূল্যে দিল্লি থেকে দেশে পরিবহন করেছে বিমান।

দুই ধাপে বাংলাদেশকে ১১ লাখ টিকা উপহার পাঠিয়েছে চীন। এছাড়া টিকার বৈশ্বিক উদ্যোগ কোভ্যাক্সের মাধ্যমে দেশটি থেকে এখন পর্যন্ত ৩৪ লাখ ৬১ হাজার ৮০১ ডোজ টিকা পেয়েছে বাংলাদেশ। এছাড়া দেশটির সঙ্গে দেড় কোটি ডোজ টিকা কেনার চুক্তি হয়েছে। এর মধ্যে ৭০ লাখ ডোজ এসেছে। আগামীকাল শনিবার আরও ১০ লাখ ডোজ টিকা আসার কথা রয়েছে। সবমিলিয়ে চীন থেকে এখন পর্যন্ত ১ কোটি ১৫ লাখ ৮০১ ডোজ টিকা পেয়েছে বাংলাদেশ।

এদিকে সংকট কাটাতে সিনোফার্মের কাছ থেকে আরও ৬ কোটি ডোজ টিকা কিনতে চায় সরকার। ইতোমধ্যে সেই প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে সরকারের ক্রয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা।

দেশের ৮০ শতাংশ জনগোষ্ঠীকে টিকার আওতায় আনার পরিকল্পনা সরকারের। সেই হিসাবে দেশের ১৩ কোটি ৮২ লাখ জনগোষ্ঠীকে টিকাকরণ করতে হবে। এ জন্য প্রয়োজন ২৭ কোটি ৬৫ লাখ টিকা। এখন পর্যন্ত পাওয়া গেছে ২ কোটি ৭৩ লাখ ৪৩ হাজার ৯২০ ডোজ টিকা।

জয়নিউজ/এসআই
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...