সীতাকুণ্ডে ট্রাকচালককে হত্যা: ডাকাত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

0

সীতাকুণ্ডে র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে এক ডাকাত নিহত হয়েছে। শুক্রবার (৬ আগস্ট) দিবাগত রাত সোয়া ১টার দিকে ফৌজদারহাট বায়েজিদ লিংক রোড সলিমপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ডাকাত কাজল (৪৮) নগরের পাহাড়তলী এলাকার বাসিন্দা। তিনি ফৌজদারহাট-বায়েজিদ বোস্তামী সংযোগ সড়কে গত ১৬ জুলাই গরুবাহী ট্রাকচালক আবদুর রহমান (৫০) হত্যা মামলার আসামি বলে জানিয়েছে র‌্যাব।

জানা যায়, ফৌজদারহাট-বায়েজিদ লিংক রোড এলাকায় মহাসড়কে শুক্রবার রাতে একদল ডাকাত ডাকাতির প্রস্তুতি নেওয়ার খবর পায় র‌্যাব। এরপর র‌্যাব সদস্যরা সেখানে অভিযান চালাতে গিয়ে লিংক রোডের ৪ নম্বর ব্রিজ এলাকায় পৌঁছালে ডাকাতরা গুলি ছোড়ে। আত্মরক্ষার্থে র‌্যাব সদস্যরাও পাল্টা গুলি চালায়।

র‌্যাব-৭ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মো. নুরুল আবছার বলেন, সলিমপুর এলাকায় শুক্রবার রাতে র্যাবকে লক্ষ্য করে ডাকাত দল গুলি ছুড়লে র‌্যাবও পাল্টা গুলি করে। পরে ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় ডাকাত কাজলের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এছাড়া একটি বিদেশি পিস্তল, দুই রাউন্ড গুলি, দুটি এলজি, ১৫ রাউন্ড কার্তুজ, একটি কার্তুজের খোসা, দুটি রাম দা, একটি ছোরা উদ্ধার করা হয়।

তিনি আরও জানান, কাজলের বিরুদ্ধে একাধিক ডাকাতি, অস্ত্র ও খুনের মামলা রয়েছে। বর্তমানে মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রয়েছে।

সীতাকুণ্ড থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবুল কালাম আজাদ বলেন, ফৌজদারহাট-বায়েজিদ লিংক রোডে ট্রাক থেকে গরু লুটের চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে একদল ডাকাত ট্রাকচালক আবদুর রহমানকে গুলি করে হত্যা করে। এ ঘটনায় থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়। এ ঘটনায় র‌্যাব ৮ জনকে গ্রেফতার করে। এদের মধ্যে ৪ জন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়। জবানবন্দিতে তারা হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় ডাকাত কাজলকে অভিযুক্ত করেছিল।

জয়নিউজ/এসআই
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...