লকডাউনে ফের অস্থিতিশীল চালের বাজার

0

চলমান লকডাউনের প্রভাব পড়েছে কাঁচা-বাজারে। সপ্তাহের ব্যবধানে দাম বেড়েছে সবজির। সেইসঙ্গে ফের অস্থিতিশীল হয়ে উঠেছে চালের বাজার। প্রায় সব ধরনের চালের দাম কেজিতে ৪ থেকে ৫ টাকা বেড়েছে। নিত্যপ্রয়োজনীয় অন্যান্য সামগ্রী আগের বাড়তি দামেই বিক্রি হচ্ছে। অপরদিকে কমেছে বয়লার মুরগির দাম।

শুক্রবার (০৯ জুলাই) সকালে রিয়াউদ্দিন বাজার, কাজির দেউড়ি, চকবাজার এলাকা ঘুরে এসব চিত্র উঠে এসেছে।

বাজারে প্রতিকেজি বেগুন ৬০ টাকা, করল্লা ৬০ টাকা, টমেটো ৮০ টাকা, বরবটি ৮০ টাকা, চাল কুমড়া ৪০ থেকে ৫০ টাকা, মিষ্টি কুমরার ৪০ টাকা,  পটল ৪০ টাকা, ভেন্ডি ৪০ টাকা, আলু ২৫ টাকা, কাঁচামরিচের ৫০ টাকা, পেঁপে  ৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

চালের বাজারে দাম বেড়ে প্রতিকেজি মিনিকেট ৬০-৬২ টাকা, পাইজাম চাল বিক্রি হচ্ছে প্রতিকেজি ৫০ টাকা, নাজিরশাইল চাল বিক্রি হচ্ছে ৭০ টাকা, পোলাওয়ের চাল আগের দামেই ৯০-১০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

এদিকে পেঁয়াজ প্রতিকেজি বিক্রি হচ্ছে ৪৫ থেকে ৫০ টাকা। শুকনা মরিচ প্রতিকেজি ১৫০ টাকা, রসুন ৮০ থেকে ১০০ টাকা, আদার দাম বেড়ে ২০ টাকা বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ১০০ টাকা। হলুদ ১৬০ টাকা থেকে ২২০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। চিনির প্রতিকেজি বিক্রি হচ্ছে ৭৫ টাকা।

বাজারে প্রতিকেজি সোনালি (কক) মুরগি বিক্রি হচ্ছে ২১০ থেকে ২২০ টাকায়। গত সপ্তাহে ব্রয়লার মুরগি ১৩০, লেয়ার মুরগি ২৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

এছাড়া বাজারে প্রতিকেজি খাসির মাংস বিক্রি হচ্ছে ৭৫০ থেকে ৮০০ টাকায় এবং গরুর মাংস বিক্রি হচ্ছে ৬০০ টাকা।

মাছের বাজারে প্রতিকেজি তেলাপিয়া ১৫০ থেকে ১৬০ টাকা, রুই মাছ ২৫০ থেকে ২৭০ টাকা, চিংড়ি ৫০০ থেকে ৭০০ টাকা, রূপচাঁদা ৬০০ টাকা, কাতল ২৮০ টাকা, সিলভার কাপ ১৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

জয়নিউজ/হিমেল/পিডি

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...