রূপগঞ্জের সেই কারখানায় আগুন নেভেনি, নিখোঁজ অনেকে

0

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে দীর্ঘ ১৮ ঘণ্টা ধরে পুড়ছে সজীব গ্রুপের অঙ্গপ্রতিষ্ঠান হাসেম ফুড অ্যান্ড বেভারেজের সেজান জুস কারখানার ছয়তলা ভবনটি।

বৃহস্পতিবার (৮ জুলাই) বিকেল সাড়ে ৫টা থেকে শুক্রবার সকাল সাড়ে ১১টা পর্যন্ত আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা যায়নি। আগুন নেভাতে ফায়ার সার্ভিসের ১৮টি ইউনিট চেষ্টা করছে।

এদিকে শুক্রবার (৯ জুলাই) সকালে ভবনটিতে ফাটল দেখা দিয়েছে বলে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা জানিয়েছেন।

আগুনের ঘটনায় ভবনটির ছাদ থেকে লাফিয়ে পড়ে এবং দগ্ধ হয়ে এখন পর্যন্ত দুই নারী শ্রমিকসহ চারজন নিহত হয়েছেন বলে খবর পাওয়া গেছে।

এছাড়া অর্ধশত শ্রমিক আহত হওয়ার পাশাপাশি ১৫-২০ জন নিখোঁজ রয়েছেন বলে দাবি করছেন স্বজনরা। আহতদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালসহ বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। তবে নিখোঁজের সংখ্যা কত তার কোনো তালিকা এখনো প্রকাশ করেনি স্থানীয় উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা।

এব্যাপারে রূপগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শাহ নুসরাত জাহান গণমাধ্যমকে জানান, আগুনের ঘটনার পর থেকে উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে ফায়ার সার্ভিসের দমকল বাহিনী ও উদ্ধার কর্মীদের সঙ্গে কাজ করছেন।

এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনার কারণ উদঘাটনে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শামীম বেপারীকে আহ্বায়ক করে পাচঁ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা করেছে জেলা প্রশাসন।

এদিকে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহ জানান, আগুনের ঘটনায় কতজন নিখোঁজ আছেন তার একটি তালিকা প্রস্তুত করতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তথ্য-উপাত্য সংগ্রহ করে সেই তালিকা তৈরির কাজ চলছে।

জয়নিউজ/পিডি

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...