রক্তপাতহীনভাবে শেষ হলো জঙ্গি আস্তানায় অভিযান

0

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরের উকিলপাড়া এলাকায় জঙ্গি আস্তানায়  অভিযান শেষ করেছে র‌্যাব। অভিযানে ৪ জেএমবি সদস্য আত্মসমর্পণ করেছে। এসময় ওই বাড়ি থেকে দুটি পিস্তল, বোমা তৈরির সরঞ্জাম ও জিহাদি বইসহ প্রশিক্ষণের নানা সামগ্রী উদ্ধার করা হয়।

শুক্রবার (২০ নভেম্বর) ভোর ৫টা থেকে ‘জঙ্গি আস্তানা’সন্দেহে ওই বাড়িটিতে অভিযান শুরু করে র্যাব। সকাল সাড়ে ১০টার দিকে জেএমবির চার সদস্য আত্মসমর্পণ করেন।

আত্মসমর্পণ করা জঙ্গিরা হলেন, জেএমবি পাবনা-সিরাজগঞ্জ অঞ্চলের সেকেন্ড-ইন-কমান্ড কিরণ ওরফে শামীম ওরফে হামীম, পাবনার সাঁথিয়ার নাঈমুল ইসলাম, দিনাজপুরের আতিউর রহমান ওরফে কলম সৈনিক ও সাতক্ষীরার আমিনুল ইসলাম ওরফে শান্ত।

র‌্যাবের অতিরিক্ত মহা-পরিচালক (অপারেশনস) কর্নেল তোফায়েল মোস্তফা সারোয়ার বলেন, জেএমবির আঞ্চলিক কমান্ডার মাহমুদসহ ৪ জনকে গতরাতে রাজশাহীর শাহ মখদুম এলাকা থেকে গ্রেফতার হয়। তারা সেখানে মাসিক সভার প্রস্তুতি নিচ্ছিল। তাদের সঙ্গে নিয়ে ভোর ৪টার দিকে আমরা এই বাড়িটি শনাক্ত করি। এরপর বাড়িটি ঘেরাও করে রাখি। আমাদের উপস্থিতি টের পেয়ে তারা ৪-৫ রাউন্ড ফাঁকা গুলিবর্ষণ করে। এরপর আমরা তাদের মাইকে আত্মসমর্পণ করার আহ্বান জানায়। সকাল সাড়ে ১০টার দিকে চার জঙ্গি বেরিয়ে এসে আত্মসমর্পণ করেন। এরপর আমাদের বোমা ডিসপোজাল দল সেখান থেকে দুটি বিদেশি পিস্তল, ছোট ছোট বিয়ারিং বল, গান পাউডার, ডেটনেটর, ফিউজ, কেবল, সার্কিট, রড কার্টার রড কার্টার টুল, জিহাদি বই, নির্দেশিকা, তার টেপ, চা-পাতি রামদা ইত্যাদি উদ্ধার করে।

তিনি আরো জানান, ২০ থেকে ২৫ দিন আগে এখানে বাসা ভাড়া নেয়, তাবলীগের ছদ্মবেশে তারা প্রচারণা করে। তাদের পরিকল্পনা ছিল এখানে তাবলীগে বেশে দাওয়াত কার্যক্রম ও চাঁদা আদায় ও প্রশিক্ষণ পরিচালনা করে বাসাটা ত্যাগ করবেন। তারা একটি বাসায় একমাস বা দুই মাসের বেশি থাকতো না।

জয়নিউজ/পিডি

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...