শর্ত ভঙ্গের দায়ে গুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে ৩ দোকান

0

নগরের চাক্তায়ের ড্রামপট্টিতে শর্ত ভঙ্গের দায়ে তিনটি দোকান ও একটি টং ভেঙে গুড়িয়ে দিয়েছে চসিকের ভূ-সম্পত্তি শাখা।

রোববার (২৭ সেপ্টেম্বর) সকালে এসব দোকান গুড়িয়ে দেওয়া হয়।

জানা গেছে, লিজের শর্ত ভঙ্গ করে গণশৌচাগারের আড়ালে তিনটি স্থায়ী ও একটি টং দোকান নির্মাণ করায় সিটি করপোরেশন লিজ গ্রহীতা অভিজিত পান্ডেকে নোটিশ দিলে জবাবে তিনি লিজের শর্ত ভঙ্গ করেননি বলে সাফাই দেন। এধরনের একটি সংবাদ স্থানীয় গণমাধ্যমে প্রকাশিত হলে চসিক প্রশাসক মো. খোরশেদ আলম সুজন একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেন। কমিটিকে বিষয়টি খতিয়ে দেখার নির্দেশনাও দেন। এ প্রেক্ষিতে সরেজমিনে দেখা যায়, লিজদাতা শর্ত ভঙ্গ করে পাকা দোকান নির্মাণ করে লাগিয়ত করেছেন। এ কারণে শর্ত ভঙ্গের দায়ে চসিকের ভূ-সম্পত্তি শাখা এ অবৈধ তিনটি স্থাপনা ও টং ভেঙে গুড়িয়ে দেয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন চসিকের প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা মো. মুফিদুল আলম ও এস্টেট অফিসার কামরুল ইসলাম চৌধুরী।

এদিকে একইদিন সকালে নগরের লালখানবাজার মোড় থেকে মমতা ক্লিনিক পর্যন্ত চাঁনমারী রোডের উভয় পাশের ফুটপাত ও রাস্তা অবৈধভাবে দখল করে বসা প্রায় ৫০টি দোকান উচ্ছেদ করা হয়। এছাড়া ফুটপাতের অংশ অবৈধভাবে দখল করে নির্মিত প্রায় ৩০টি দোকানের বর্ধিত অংশ অপসারণ করা হয়। এসময় দোকানের পণ্যসামগ্রী রাস্তায় রেখে জনদুর্ভোগ সৃষ্টি ও রাস্তায় অবৈধভাবে ট্রাক পার্কিংয়ের অপরাধে ১৪ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে ২৬ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

চসিকের উদ্যোগে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মারুফা বেগম নেলী ও স্পেশাল ম্যাজিস্ট্রেট (যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ) জাহানারা ফেরদৌসের নেতৃত্বে এ অভিযান পরিচালিত হয়।

জয়নিউজ/বিআর
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...