ডা. জাফরুল্লাহর বিরুদ্ধে মামলা তুলে নিতে হুমকি, থানায় জিডি

0

জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন বিশ্ব সনাতন ঐক্যের সমন্বয়ক সাংবাদিক বিপ্লব দে পার্থ ও আইনজীবী অ্যাডভোকেট মিঠুন বিশ্বাস।

মঙ্গলবার (২৫ আগস্ট) বিকেলে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) কোতোয়ালি থানায় নিরাপত্তা ঝুঁকিতে জিডি করেন তারা। জিডির নম্বর ১৪১০।

জিডি সূত্রে জানা যায়, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী গত ৯ আগস্ট ঢাকা জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে একটি অনুষ্ঠানে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের ধর্মীয় বিষয় নিয়ে তথ্য বিকৃত করে বক্তব্য দিয়েছেন। রামায়ণ ও মহাভারত নিয়ে কটুক্তি করে তিনি ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হেনেছেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে ১৯ আগস্ট গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর বিরুদ্ধে মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা করেন বিপ্লব দে পার্থ।

আরও পড়ুন: ডা. জাফরুল্লাহর বিরুদ্ধে চট্টগ্রামে ধর্ম অবমাননার মামলা

‘মামলার পর থেকে দেশ ও বিদেশের বিভিন্ন অপরিচিত মোবাইল নম্বর থেকে বিপ্লব দে পার্থের ব্যবহৃত মোবাইলে মামলা প্রত্যাহারসহ হুমকি প্রদান করা হয়। এছাড়া মামলার আইনজীবী মিঠুন বিশ্বাসের নাম উল্লেখ করে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করা হয়। এসময় মামলা না তুললে তাদের হত্যা করে লাশ গুম করা হবে বলেও হুমকি দেওয়া হয়।’

কোতোয়ালি থানার ওসি (তদন্ত) মো. কামরুজ্জামান জিডির সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, বিপ্লব দে পার্থ ও অ্যাডভোকেট মিঠুন বিশ্বাসকে মুঠোফোনে কে বা কারা হুমকি দিচ্ছে। সেজন্য থানায় এসে তারা জিডি করেছেন। আমরা বিষয়টি তদন্ত করে দেখছি।

সাংবাদিক বিপ্লব দে পার্থ বলেন, সনাতন ধর্মের দুটি গ্রন্থ রামায়ণ ও মহাভারত নিয়ে কটুক্তি করায় আমি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর বিরুদ্ধে মামলা করেছি। এখানে কোনো ধর্ম বা গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে মামলা করিনি।

মামলার পর একটি চক্র এটিকে নিয়ে মিথ্যাচার করছে। তারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্নভাবে আমার ছবি ব্যবহার করে মিথ্যাচার করছে এবং ফোনে আমি ও আমার আইনজীবীকে হত্যার হুমকি দিয়েছে। তাই থানায় জিডি দায়ের করেছি।— যোগ করেন তিনি।

জয়নিউজ/এসআই
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...