হাটহাজারীতে ব্যাংকের ৭ কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ ২৬ জন করোনায় আক্রান্ত!

0

হাটহাজারী এখন করোনার হটস্পটে পরিণত হয়েছে। উপজেলার ব্যাংকপাড়া বলে খ্যাত পৌর সদরের ব্যস্ততম কাচারী সড়কের সোনালী ব্যাংক শাখায় ১৭ জন ব্যাংক কর্মকর্তা-কর্মচারীর মধ্যে ব্যাংকের ব্যবস্থাপক, সেকেন্ড অফিসার ও আনসারসহ সাতজনই করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (২৮ মে) রাতে ওই সাতজনসহ উপজেলায় একদিনে রেকর্ডসংখ্যক ২৬ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে বলে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আবু সৈয়দ মো. ইমতিয়াজ হোসাইন।

আক্রান্তদের মধ্যে ব্যাংকে কর্মরত আনসার সদস্যও রয়েছেন। তবে আক্রান্ত সবাই শারীরিকভাবে সুস্থ আছেন বলে জানা গেছে। এছাড়া উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে করোনায় আক্রান্ত ১৯ জনের মধ্যে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে হাটহাজারীতে আক্রান্তের সংখ্যা মোট ৮৮ জন এবং মৃতের সংখ্যা তিন নারীসহ চারজন।

গ্রাহক সেবায় ব্যাংক খোলা থাকবে কি-না জানতে চাইলে মো. রেজাউল করিম নামে ব্যাংকটির নিয়ন্ত্রণকারী কার্যালয় চট্টগ্রাম উত্তরের এক কর্মকর্তা জয়নিউজকে বলেন, ব্যাংকটির ওই শাখার কর্মকর্তা-কর্মচারী ও আনসারসহ ১৭ জনের মধ্যে ১০ জনই আক্রান্ত। সম্প্রতি ব্যাংকের সিনিয়র ক্যাশ অফিসার আক্রান্তের পর একের পর এক অন্যান্য কর্মকর্তা কর্মচারী বিভিন্ন ল্যাবে নমুনা পরীক্ষা করায়। মঙ্গলবার ব্যাংকের নারীসহ দুই অফিসার এবং বৃহস্পতিবার ব্যাংকের ব্যবস্থাপক, সেকেন্ড অফিসার ও আনসারসহ সাতজনের পজিটিভ আসে। পাশাপাশি তাদের পরিবারের সদস্যরাও আক্রান্ত। তবে বাকি কর্মকর্তাদের নমুনার রিপোর্ট শুক্রবার (২৯ মে) রাতে পাওয়া যেতে পারে। জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের কাছ থেকে এখনও পর্যন্ত শাখাটি বন্ধ বা খোলা রাখার ব্যাপারে কোনো নিদের্শনা পায়নি।

এদিকে একদিনে সোনালী ব্যাংকের সাতজনসহ রেকর্ডসংখ্যক ২৬ জন ব্যক্তির করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে জানিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা জয়নিউজকে বলেন, হাটহাজারী এখন করোনার হটস্পটে পরিণত হয়েছে। এ পর্যন্ত একদিনে ২৬ জন আক্রান্ত হওয়া সর্বোচ্চ রেকর্ড। এ নিয়ে উপজেলায় ৮৮ জন করোনায় আক্রান্ত। যার শতকরা হার প্রায় ২০.৪৮ শতাংশ। ইতোমধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন চারজন এবং মারা গেছেন তিনজন নারী ও একজন পুরুষ।

জয়নিউজ/তালেব/বিআর
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...