স্কুল-মসজিদ নির্মাণের জন্য মুক্তিযোদ্ধার জমি দান

0

পেকুয়ায় স্কুল-মসজিদ ও কমপ্লেক্সের জন্য কোটি টাকা দামের জমি দিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা ও টইটং ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান রমিজ উদ্দিন আহমদ। গ্রামে শিক্ষার প্রদীপ জ্বালিয়ে দিতে এই মুক্তিযোদ্ধা শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের জন্য প্রায় কোটি টাকা মূল্যের ২ একর ২০ শতক জমি দান করেছেন।

জানা যায়, উপজেলার টইটং ইউনিয়নের রমিজপাড়া গ্রামে মুক্তিযোদ্ধার দানকৃত জমিতেই এসব স্থাপনা স্থাপিত হচ্ছে। টইটং ইউনিয়নের পূর্ব সোনাইছড়ি রমিজপাড়ায় এবার হচ্ছে বীর মুক্তিযোদ্ধা রমিজ উদ্দিন আহমদ কমপ্লেক্স। পাহাড়ের নিচে ফসলিজমিতে স্থাপিত হতে যাচ্ছে স্কুল কাম কমপ্লেক্স। ইতোমধ্যে পাহাড়ি অঞ্চলে রমিজ উদ্দিন আহমদের নামকরণে একটি মসজিদ স্থাপিত হয়েছে। গত ২ মাস আগে ওই মসজিদ স্থাপন করা হয়েছে। দৈনিক পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ আদায়ের পাশাপাশি শুক্রবারে জুমার নামাজও আদায় হচ্ছে এ মসজিদে।

এলাকাবাসীরা জানান, মুক্তিযোদ্ধা রমিজ উদ্দিন আহমদ একজন দানবীর ও সমাজসেবক। ১৯৭১ সালে দেশ ও মাতৃকার জন্য মুক্তিযোদ্ধে অংশ নিয়েছিলেন। পাক বাহিনীর সঙ্গে এ মুক্তিযোদ্ধা রণাঙ্গনে সম্মুখ যুদ্ধে অংশ নেন।

বীর মুক্তিযোদ্ধা ও টইটং ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান রমিজ উদ্দিন আহমদ জানান, আসলে অনেক দিনের কল্পনা আজকে বাস্তব প্রতিফলিত হচ্ছে। আমার মনের মধ্যে এমন বাসনা ছিল। বার্ধক্যতে এসে কাজটি শুরু করেছি। আল্লাহ আমাকে অনেক দিয়েছে। মানবতার কল্যাণের জন্য কিছু না করলে নিজেকে অপরাধী মনে করছি। জমি দিয়েছি ৩ কানি। লাগলে আরও দেব। এখন উন্নয়ন ও অবকাঠামোর জন্য অর্থের প্রয়োজন। ইনশাআল্লাহ হয়ে যাবে।

জয়নিউজ/এসআই
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...