এদিকে সুনসান, ওদিকে লোকারণ্য

0

করোনায় কাঁপছে বিশ্ব। ভয়াবহ ঝুঁকিতে রয়েছে বাংলাদেশও। যতই দিন যাচ্ছে ততই দেশে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। কিন্তু এরপরও অনেকের চৈতন্য ফিরছে না।

সরকারি সংস্থার দিনজুড়ে কার্যক্রম, গণমাধ্যমের প্রচার; কোনো কিছুই ওদের সচেতন করতে পারছে না।

নগরের অনেক গলির মুখে দিনভর থাকছে মানুষের জটলা। আবার ব্যস্ত সড়কেও দেখা যায় অহেতুক ঘোরাঘুরি। বৃহস্পতিবার (৯ এপ্রিল) দুপুর একটার দিকে নগরের তিনপুলের মাথায় যেন বসেছিল মানুষের মেলা।

দিনভর মানুষের জটলা থাকে নগরের তিন পুলের মাথায়

মেলার এ বিস্তৃতি আরো বেড়েছে পাইকারি বাজার রিয়াজউদ্দিন বাজারে। না, সবাই যে বাজার করতে এসেছে তা নয়। কারণ অনেকের হাতেই যে ছিল না কোনো পণ্য! আবার মোটরসাইকেল নিয়ে দু’-একজনকে দেখা গেল, বাজারকে রাজপথ বানাতে।

রিয়াজউদ্দিন বাজারকে বানানো হয়েছে রাজপথ

তবে একেবারে ভিন্ন চিত্র ছিল এর অদূরে। স্বাভাবিক দিনে যে স্থানটিতে সবচেয়ে বেশি জনসমাগম থাকে সেই স্থানটিই সুনসান। বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে চট্টগ্রাম আদালত প্রাঙ্গণে ছিল একেবারেই ফাঁকা।

ফাঁকা পড়ে থাকা আদালত এলাকা

পুরো আদালত এলাকার কোথাও ঘোরাফেরা করা কোনো মানুষ চোখে পড়েনি। শুধু প্রতিটি ভবনের গেইটের সামনে ছিল সিকিউরিটি গার্ড। বিশাল বৃক্ষে ভরা আদালত এলাকায় ছিল অদ্ভুত এক নির্জনতা। সেই নির্জনতা মেনেই ফাঁকা আদালত এলাকায় ঘুরে বেড়াচ্ছিল কুকুরের দল।

কোলাহল থাকা এ এলাকা এখন সুনসান

জয়নিউজ

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...