দামপাড়ায় করোনায় আক্রান্তে পটিয়ায় লকডাউন

0

পটিয়া পৌরসভার শেয়ানপাড়ার কয়েকটি বাড়ি শনিবার (৪ এপ্রিল) দুপুরে লকডাউন করেছে উপজেলা প্রশাসন। নগরের দামপাড়ায় করোনা শনাক্ত ব্যক্তির মেয়ের শ্বশুরবাড়ি হওয়ার কারণে সেখানে লকডাউন করা হয়।

স্থানীয় কাউন্সিলর গোফরান রানা জয়নিউজকে বলেন, প্রশাসনের তরফ থেকে শেয়ানপাড়ার চার নম্বর ওয়ার্ডের কিছু অংশ লকডাউন করা হয়েছে। গ্রামবাসীকে সুরক্ষিত রাখতে স্থানীয় যুবকরাও লকডাউনে সহায়তা করছে। একইসঙ্গে আমরা স্থানীয়দের সচেতন করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।

সরেজমিন দেখা যায়, পৌরসভার শেয়ানপাড়ার ছমদ হাজীর বাড়ির প্রবেশমুখে বাঁশ দিয়ে ব্যারিকেড তৈরি করা হয়েছে। ব্যারিকেডের বাঁশের উপর লেখা ‘লকডাউন চলছে’। আরেকটি কাগজে লেখা ‘নিজে বাঁচুন, অন্যকে বেঁচে থাকার সুযোগ দিন।’

সচেতনতামূলক এ কার্যক্রম বাস্তবায়নের লক্ষ্যে উপজেলা প্রশাসন ও পটিয়া থানা পুলিশ পালাক্রমে পাহারা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। লকডাউনে থাকা পরিবারগুলোকে আগামী দশ দিনের খাবার সরবরাহ করে দিয়েছেন উপজেলা প্রশাসন।

এদিকে এলাকায় বাইরের কেউ প্রবেশ করতে চাইলে তাদের বুঝিয়ে ফেরত পাঠানো হচ্ছে। আর প্রয়োজন ছাড়া এলাকার কাউকে বের হতে দেওয়া হচ্ছে না। পরে প্রবেশমুখগুলোতে জীবাণুনাশক ছিটানোর পরিকল্পনা রয়েছে।

স্থানীয়রা এ উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়ে বলেন, নিজেদের সুরক্ষায় কয়েকদিন যদি বের না হয়ে থাকতে হয়, তাহলে সেটি মেনে চলতে কোনো ক্ষতি নেই। আমাদের এলাকার যুবসমাজ যে উদ্যোগ নিয়েছে সেটি প্রতিবেশী ও স্থানীয়দের জন্য ইতিবাচক। ওয়ার্ডে সচেতনতার কাজ চলছে। ইতোমধ্যে সড়কে গাড়ি চলাচল সীমিত করা হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফারহানা জাহান উপমা জয়নিউজকে বলেন, প্রশাসনের পক্ষ থেকে পরিবারটিকে লকডাউন করা হয়েছে। আমরা পুলিশ, সেনাবাহিনী এবং ম্যাজিস্ট্রেট দিয়ে মনিটরিং করছি।

উল্লেখ্য, নগরের দামপাড়ায় করোনা আক্রান্ত ব্যক্তিকে দেখতে পটিয়া থেকে গিয়েছিলেন তাঁর মেয়ের শ্বশুরবাড়ির লোকজন।

জয়নিউজ/কাউছার/বিআর
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...