মেয়র নাছিরের ত্রাণ পৌঁছে গেছে নিম্ন আয়ের মানুষের ঘরে

0

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। কথায় না কাজে বিশ্বাসী সেটি সকলের জানা। আর রাজনৈতিক আদর্শের প্রশ্নে একচুলও যিনি ছাড় দিতে রাজি নন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একনিষ্ঠ এ কর্মী তাই রাজনীতিকে ব্যবহার করেন মানবসেবায়।

করোনার সংক্রমণ এড়াতে নগরজুড়ে ঘরবন্দি সব শ্রেণি পেশার মানুষ। এতে বিপাকে পড়েছে অসহায়, দরিদ্র ও খেটে খাওয়া মানুষ। কারণ তাদের দিনের আয়ে দিন চলে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের পাশাপাশি মন্ত্রী এমপি, বিত্তবানদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন। এছাড়া ত্রাণ নিয়ে যাতে কোনো দুর্নীতি না হয় সে বিষয়ে দিয়েছেন কঠোর হুঁশিয়ারি।

করোনা মোকাবেলায় চট্টগ্রামের এমপি-মন্ত্রীদের মাঠে দেখা না গেলেও সেই শুরু থেকেই একাই লড়ে যাচ্ছেন মেয়র নাছির। এমনকি সিটি নির্বাচনে মেয়রপদে বড় দলের যেই দুই প্রার্থী লড়ছেন তাদেরও দেখা যাচ্ছে না। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে নগরের নিম্নআয়ের মানুষের পাশে এসে দাঁড়িয়েছে সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। ব্যক্তিগত তহবিল থেকে চাল, ডাল, আলু, তেল ও লবণ পৌঁছে দিচ্ছেন নিম্নআয়োর মানুষের ঘরে ঘরে।

ত্রাণ নিতে কোথাও আসতে হচ্ছে না। ঘরে গিয়ে স্বয়ং মেয়র নাছিরেই তুলে দিচ্ছেন এসব সামগ্রী।

৪১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলরের হাতে বিতরণের জন্য ত্রাণ সামগ্রী তুলে দিচ্ছেন মেয়র

মঙ্গলবার (৩১ মার্চ) দুপুর থেকে বিকাল পর্যন্ত নিজে দেওয়ানহাটসহ আশে পাশের এলাকায় নিম্নআয়ের মানুষের হাতে এসব খাদ্য সামগ্রী তুলে দেন। এছাড়া বিভিন্ন এলাকায় বিতরণের জন্য কাউন্সিলরদেরকে ব্যক্তিগত তহবিলের ত্রাণ তুলে দেন।

এর আগে মঙ্গলবার সকালে বাসা থেকে বের হয়ে নগরের বিভিন্ন স্থানে ঘুরে ঘুরে রিকশাচালক, দিনমজুর এবং শ্রমজীবীদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেন মেয়র নাছির।

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন সূত্র জানায়, করোনা প্রাদুর্ভাবের পর করপারেশনের উদ্যেগে গত ১৯ মার্চ জনসচেতনতার সৃষ্টির লক্ষ্যে চট্টগ্রামের সকল স্থানীয় পত্রিকায় গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়েছে। ২০ মার্চ নগরের মসজিদ, মন্দির, গির্জা ও প্যাগোডায় বিশেষ প্রার্থনার আহ্বান ছিল সিটি মেয়রের। ২১ মার্চ নগরের বিভিন্ন মোড়ে হাত ধোয়ার জন্য সাবান ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ করেন মেয়র। ২৩ মার্চ জনসমাগম এড়িয়ে চলতে নাগরিকদের সচেতন করতে মাইক হাতে রাস্তায় নামেন সিটি মেয়র। ওইদিন নগরের লালখানবাজার, ওয়াসা মোড়, জিইসি মোড়, ২ নম্বর গেট, ষোলশহর রেল স্টেশন, মুরাদপুর, বহদ্দারহাট, চকবাজার, জামালখান, কাজীর দেউড়ি, আন্দরকিল্লা ও বকসির হাটসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় ঘুরে ঘুরে মাইকিংয়ের মাধ্যমে প্রচারণা চালানো হয়।

শনিবার (২৮ মার্চ) শ্রমজীবী জনসাধারণ কর্মহীনদের মাঝে নগদ অর্থ বিতরণ করেছেন সিটি মেয়র। রোববার নগরের ৪১টি ওয়ার্ডে কর্মহীন মানুষের জন্য চাল, ডাল, তেলসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যসামগ্রী ঘরে ঘরে পৌঁছে দেওয়া এবং বিভিন্নস্থানে কর্মহীন, অভুক্ত ও অসহায় মানুষের হাতে নগদ অর্থ সাহায্য দেওয়া একইসঙ্গে নগরীর মেমন মাতৃসদন ও বিভিন্ন আবাসিক এলাকায় জীবাণুনাশক কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়।

জয়নিউজ/বিআর
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...