ফেসবুকের ডাক্তারকে আটক করলেন ভ্রাম্যমাণ আদালত

0

নিজে ডাক্তার না হয়েও ফেসবুকে করোনাভাইরাসের ভেষজ চিকিৎসার একটা প্রেসক্রিপশন দিয়েছেন  মনসুর আলী নামে এক যুবক।

জানা যায়, বৃহস্পতিবার (১৯ মার্চ), সন্ধ্যা ৬টা ২৮ মিনিটে মনসুর আলী নামে জনৈকব্যক্তি তার নিজস্ব আইডি থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেসবুকে একটা স্ট্যাটাস দেন। সেখানে তিনি লিখেন করোনা নিয়ে আতঙ্কের কোনো কারণ নেই। তিনশ’ টাকায় ভেষজ দুই বোতল সিরাপ থারমোকেয়ার ও বাসোডেক্স (ভেষজ ওষুধ) মাত্র ১২০ দিন সেবনে নির্মুল হবে প্রাণঘাতি করোনাভাইরাস।

এভাবে ফেসবুকে নিজে ওষুধ আবিষ্কারের নামে প্রতারণা করে যাওয়া হাটহাজারীর চিকনদণ্ডী ইউনিয়নের চৌধুরী হাটের পূর্বপাশে সদ্দারপাড়ার মনসুর আলী নামে এক যুবককে হাতেনাতে আটক করে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

সোমবার (৩০ মার্চ) দুপুরে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুহুল আমিন তাকে আটকের পর জিজ্ঞাসাবাদে সে প্রতারণার কথা স্বীকার করে। পরে তাকে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেওয়া হয়। তবে ফের প্রতারণা না করার শর্তে মুচলেকা নিয়ে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানের জিম্মায় তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

ইউএনও রুহুল আমীন জয়নিউজকে বলেন, বিষয়টি নজরে আসার পর এ ওষুধ কিনতে আমি ছদ্মবেশ নিয়ে হাজির হই প্রতারক মনসুরের বাড়িতে। এরপর সে নিজে তিনশ’ টাকায় দুই বোতল ওষুধ ১২০ দিন সেবনের পরামর্শ দিয়ে আমার হাতে তুলে দেন করোনাভাইরাস নির্মূলের ওষুধ। তবে বোতলের লেভেল দেখে বুঝলাম এগুলো কাশির সিরাপ।

জয়নিউজ/তালেব/বিআর
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...