সমাধানে ব্যবধান বেশি, তাই . . .

0

করোনাভাইরাস সংক্রমণ ঠেকানোর জন্য সতর্কতা ও পরিচ্ছন্নতায় প্রতিদিন প্রশাসন অথবা ব্যক্তিগত উদ্যোগে পথে-প্রান্তরে ছিটানো হচ্ছে ব্লিচিং পাউডার মেশানো জীবাণুনাশক পানি। এতে করে হাটবাজারের দোকানগুলোতে ব্লিচিং পাউডার বিক্রি ব্যাপক হারে বেড়ে যাওয়ায় সংকট দেখা দিয়েছে।

এ সুযোগটি কাজে লাগিয়েছে হাটহাজারী পৌরসভার কাচারী রোডের সমাধান স্টোরের মালিক শিমুল সেন।

তিনি (দোকান মালিক) ৬০ টাকা দামের খোলা ব্লিচিং পাউডার বিক্রি করছে ১৬০-২০০ টাকা কেজি দরে।

রোববার (২৯ মার্চ) দুপুরে সংবাদ পেয়ে ওই দোকানে অভিযান চালায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রুহুল আমিন।

এসময় ইউএনও বলেন, সকালে সমাধান স্টোরে গিয়ে জানতে চাইলাম ব্লিচিং পাউডার আছে কি-না? দোকানি উদাস হয়ে জানালেন, এসব বিক্রি করি না। এ সময় আচমকা এক লোক এসে জানালেন, স্যার এ মাত্রই আমার কাছে আধা কেজির চেয়েও কম ব্লিচিং পাউডারের দাম ৮০ টাকা চাইল। এরপর দোকানে তল্লাশি করে ৭ কেজি ব্লিচিং পাউডার পাওয়া যায়। পরে এসব জব্দ করে ঘটনাস্থলেই ১০০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করে দোকানদারকে টাকা দিয়ে দেওয়া হয় এবং মুচলেকা নিয়ে সতর্ক করা হয় দোকানিকে।

জয়নিউজ/তালেব/বিআর
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...