তিনটি প্যান্ট পড়েও রেহাই পেলেন না দুই নারী

0

বান্দরবানে অভিনব পন্থায় ইয়াবা পাচারকালে দুইজন পাহাড়ি নারীকে আটক করা হয়েছে। আটক নারীরা একটির বিপরীতে তিনটি প্যান্ট পড়ে মাঝখানের প্যান্টের মধ্যে সেলাই করে ধাপে ধাপে ইয়াবা নিয়েছিল।

আটকৃতরা হলেন- কক্সবাজার উখিয়ার মোচাং খোলার বাসিন্দা অংমে রাছার কন্যা হ্লাচিং ম্যা চাকমা (২৭) ও ক্যওচসিং চাকমার স্ত্রী উক্যাংচিং তঞ্চঙ্গ্যা (২৮)।

বুধবার (১৮ মার্চ) সদর থানায় প্রেস ব্রিফিংয়ে গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানান সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শহীদুল ইসলাম চৌধুরী।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, মঙ্গলবার রাতে পুলিশের একটি টিম বান্দরবান বাসস্টেশন এলাকায় অভিযান চালায়। এসময় গোপন তথ্যেরভিত্তিতে পুলিশ দুইজন পাহাড়ি নারীকে আটক করে। নারী পুলিশের সদস্যরা আটক নারীদের দেহ তল্লাশি করে অভিনব পন্থায় প্যান্টের মধ্যে সেলাই করে বিভিন্ন ধাপে রাখা ১৩টি নীল রঙের ইয়াবা প্যাকেট উদ্ধার করে। উদ্ধার করা ১৩টি প্যাকেট থেকে ২ হাজার ৬শ’ ইয়াবা জব্দ করা হয়। তবে অভিযানের বিষয়টি টের পেয়ে তাদের সহযোগী একজন পুরুষ পালিয়ে গেছে।
বান্দরবান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো. রেজা সরোয়ার জয়নিউজকে জানান, মাদকদ্রব্য পাচারকারীরা মাদকপাচার কাজে পাহাড়ের নারী-পুরুষদের ব্যবহার করছে। সিন্ডিকেট চক্রের দুজন নারী সদস্যকে ২ হাজার ৬শ’ ইয়াবাসহ আটক করা হয়েছে।

তাদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য আইনে সদর থানায় একটি মামলা করা হয়েছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর চোখ ফাঁকি দিতে মাদক পাচারকারীরা নিত্যনতুন অভিনব পন্থা ব্যবহার করছে। এ ক্ষেত্রে পাচারকারী নারীরা একটির বিপরীতে তিনটি প্যান্ট পড়েছে। মাঝখানের প্যান্টের মধ্যে সেলাই করে ধাপে ধাপে ইয়াবা নিয়েছিল। তথ্য থাকায় তাদের সনাক্ত করে ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে। সাদা চোখে যা কখনো সম্ভব নয় বলে জানান তিনি।

জয়নিউজ/আলাউদ্দীন/বিআর
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...