নিজের প্রয়োজনে শিক্ষার্থীদের সুশিক্ষায় শিক্ষিত হতে হবে: বীর বাহাদুর

0

শিক্ষার কোনো বিকল্প নেই। পাহাড়ে পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর মাঝে শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দিতে কাজ করছে সরকার। পার্বত্য চট্টগ্রামের উচ্চশিক্ষা বঞ্চিত ছাত্রছাত্রীর জন্য পাহাড়ে নতুন নতুন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা হচ্ছে। মাতৃভাষায় প্রাথমিক শিক্ষা নিশ্চিত করতে পাহাড়ি জনগোষ্ঠীদের নিজস্ব ভাষায় পাঠ্যবই সরবরাহ করা হচ্ছে। শিক্ষার্থীকে তার স্বপ্ন আর গন্তব্য ঠিক রাখতে হবে। শিক্ষার্থীদের আলোকিত মানুষ হয়ে দেশের জন্য অবদান রাখতে হবে।

পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের উদ্যোগে শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষাবৃত্তি প্রদান অনু্ঠানে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি এসব কথা বলেন।

শুক্রবার (২৮ ফেব্রুয়ারি)বান্দরবানের অরুনসার্কি টাউনহলে শিক্ষাবৃত্তি দেওয়া হয়।

এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পার্বত্যচট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মেসবাহুল করিম, জেলা প্রশাসক মো. দাউদুল ইসলাম, পুলিশ সুপার জেরিন আখতার, বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা এটিএম কাউছার হোসেন, সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ মো. মকছুদুল আমিন, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের পিডি আবদুল আজিজ, নির্বাহী প্রকৌশলী আবু বিন মোহাম্মদ ইয়াছির আরাফাতসহ বান্দরবানের বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা ও বিভিন্ন কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, বান্দরবানসহ তিন পার্বত্য জেলায় কলেজ পর্যায়ে ৯৫১জন শিক্ষার্থীর মাঝে ৬৬ লাখ ৫৭ হাজার টাকা এবং বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ের ১ হাজার ২৪৯ জন শিক্ষার্থীর মাঝে ১ কোটি ৯১ লাখ ৪৭ হাজার টাকা বিতরণ করা হয়।

জয়নিউজ/আলাউদ্দিন/বিআর
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...