চিটাগং ব্যাডমিন্টন ফেস্টে করপোরেটদের অন্য লড়াই

0

সকাল-বিকেল অফিস। কর্মব্যস্ত জীবনে খেলাধুলোর সময় কোথায়? কেউ ব্যাংকার, কেউ করপোরেটর। শীতের এই আমেজে ইচ্ছে থাকলেও বুঝি আর ব্যাডমিন্টন খেলা হলো না!

তবে না, শহরজুড়ে যেখানে সন্ধ্যে নামলে দলবেধে হই-হুল্লোড়, সেখানে ঘড়ির কাঁটায় এগিয়ে চলা মানুষগুলোই বা কেনো আনন্দ থেকে একধাপ পিছনে থাকবেন, বলুন?

চট্টগ্রামের করপোরেট জগতের কর্মকর্তাদের জন্য টিম চিটাগং প্রতিষ্ঠানের আয়োজনে অনুষ্ঠিত হলো জমজমাট ‘চিটাগং ব্যাডমিন্টন ফেস্ট’। টানা তৃতীয়বারের মতো এবারও এই প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হলো।

নগরের চট্টগ্রাম রাইফেলস ক্লাব মাঠে দিনব্যাপি শুক্রবার (২৪ জানুয়ারি) এ প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়। অনুষ্ঠানে চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন মিলানো রেস্টুরেন্ট গ্রুপ। আর রানার্সআপ হয়েছেন কিউব।

পুরস্কার বিতরণী পর্বে প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম জেলা ক্রীড়া সংস্থার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মুশফিকুর রহমান চৌধুরী। বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের ডেপুটি গভর্নর আমিনুল হক বাবু, র্যাং কস প্রপার্টিজের সিইও তানভীর শাহরিয়ার রিমন, আয়োজক টিম চিটাগং এর প্রতিষ্ঠাতা ও প্রেসিডেন্ট ইমতিয়াজ উদ্দীন জিহাদ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন মো. আবদুল্লাহ আল কায়সার।

আয়োজকরা জানান, ব্যাডমিন্টন ফেস্টে মোট ১৮টি করপোরেট প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহণ করে। সেখান থেকে ৬টি দলকে দ্বিতীয় পর্বের জন্য বাছাই করা হয়। এরপর ফাইনালে অংশ নেন দুটি দল।

প্রতিযোগিতায় যারা অংশ নেন তাদের মধ্যে ছিল পেড্রোলো গ্রুপ, এলিট পেইন্টস, বায়েজিদ স্টিল, কেডিএস গ্রুপ, এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংক, পিটুপি ফ্যামিলি ও আরামিট সিমেন্ট লিমিটেডসহ মোট ১৮টি দল।

টিম চিটাগং এর প্রতিষ্ঠাতা ও প্রেসিডেন্ট ইমতিয়াজ উদ্দীন জিহাদ বলেন, এই ধরণের প্রতিযোগিতা কেবল নিছক আনন্দ নয়, বাণিজ্যিক রাজধানীর কর্পোরেট জগতের মানুষগুলোর ভেতরও একধরণের বন্ধন ও বন্ধুত্ব সৃষ্টি করে।

জয়নিউজ/বিআর
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...