অভিনেত্রীর অভিযোগ: মনে হচ্ছিল রেপড হয়ে যাব

0

হলিউড, বলিউডের অনেক গুণী সিনেমার পরিচালক, নায়ক ও কলাকুশলীরা #মিটু ঝড়ে নাকাল। সেই ঝড়টি কলকাতার বিনোদন জগতেও প্রবেশ করেছে। এবার গুণী পরিচালক অরিন্দম শীলের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানি বা অশালীন আচরণের বিস্ফোরক অভিযোগ তুললেন অভিনেত্রী রূপাঞ্জনা মৈত্র।

সম্প্রতি এক সংবাদমাধ্যমকে রুপাঞ্চনা জানিয়েছেন, পুজোর সময় সম্ভবত তখন তৃতীয়া, ‘ভূমিকন্যা’ধারাবাহিকের চিত্রনাট্য পড়ে শোনাতে তাকে অফিসে ডেকে নেন পরিচালক অরিন্দম শীল। নির্ধারিত সময়ে পরিচালকের ইস্টার্ন বাইপাসের ধারের অফিসে পৌঁছান তিনি।  আর অফিসেই তাকে আলিঙ্গন করেই নাকি যৌন ইঙ্গিত করেন অরিন্দম। ওই সময় অফিস ফাঁকা থাকায় চিন্তিত হয়ে পড়েন এ অভিনেত্রী।

রূপাঞ্জনা জানান, অফিসে ঢুকতেই তিনি জিজ্ঞসা করেন, চা খাবি? চায়ের লোকটি চা দিয়ে যাওয়ার পরেই সেখান থেকে কায়দা করে তাঁকে সরে যেতে বলেন উনি। তখন অফিসে শুধু আমরা দু’জন। আমার ভীষণ আনক্যানি ফিল হচ্ছিল। আর ওঁর চেম্বারটা এমন ভেতরে যে চিৎকার করলেও কেউ শুনতে পাবে না। হঠাৎই নিজের জায়গা থেকে উঠে এসে ঘরেই একটা কাউচে এসে বসলেন। বলে বোঝাতে পারব না। ওঁর বসা, কথা বলা…ভীষণ ইঙ্গিতপূর্ণ। হাত বাড়িয়ে আমাকে ডাকছে।”

অভিনেত্রী আরো জানান ‘যখন সেই ব্যক্তি কাউচে বসতে গেলেন, যাওয়ার আগে আমার মাথায় হাত বুলোচ্ছেন…কখনও পিঠে। আমি ভগবানকে ডাকছি তখন। আরে বাবা, আমি তো নতুন মেয়ে নই। এতদিন ধরে কাজ করছি। সাইবাবাকে ডেকে চলেছি, কেউ একজন যেন চলে আসে। কিন্তু কেউ তো নেই। মনে হচ্ছিল এই বার বুঝি আমি রেপড হয়ে যাব। কেউ হাত-ফাত বুলিয়ে চলে যাচ্ছে…এরপর যে তিনি কী করতে পারেন সেটা হয়তো একজন মহিলার পক্ষে আন্দাজ করা খুব সহজ। আমি আর থাকতে না পেরে ওঁকে বেশ স্পষ্ট করে গোটা গোটা ভাষায় বলি, ‘‘অরিন্দমদা, প্লিজ টেল মি অ্যাবাউট দ্য স্ক্রিপ্ট। উনি বোধহয় তখন বুঝতে পারলেন, যে সব মহিলার সঙ্গে উনি সচরাচর এই ধরনের ট্রিক খেলে থাকেন আমি তাঁদের মধ্যে পড়ি না।”

রূপাঞ্জনার কথা অনুযায়ী, “এরপর আচমকাই ‘ডিরেক্টর মোডে’ চলে যান অরিন্দম। স্ক্রিপ্ট বোঝাতে শুরু করেন। এরপর পাঁচ মিনিটের মধ্যে আমি জানিনা কী ভাবে, কোথা থেকে ওঁর স্ত্রী সেখানে উপস্থিত হন। আমাকে দেখে তিনিও অপ্রস্তুত।

এতোদিন পর অভিযোগ তোলার কারণ সম্পর্কে তিনি বলেন, যে চ্যানেলে ‘ভূমিকন্যা’ সম্প্রচারিত হত, সেই চ্যানেলের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ থাকার কারণেই এতোদিন মুখ বন্ধ রাখেন।

এদিকে পরিচালক অরিন্দম শীল জানান, তার বিরুদ্ধে করা এসব অভিযোগ মিথ্যা। রুপাঞ্চনা দীর্ঘদিনের বন্ধু হয়েও মিথ্যা বলছে।

জয়নিউজ/পিডি

 

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...