চ্যালেঞ্জের পাশাপাশি ক্রিকেটারদের মনে শঙ্কা কাজ করছে

0

প্রথমবারের মতো গোলাপি বলে দিবা-রাত্রির টেস্ট খেলতে যাচ্ছে ভারত। সেখানে তাদের প্রতিপক্ষ বাংলাদেশ। ইডেন গার্ডেন ঐতিহাসিক এই ম্যাচের আয়োজন।

শুক্রবার (২২ নভেম্বর) দুপুর ১টায় শুরু হবে ম্যাচটি। এই ম্যাচ নিয়ে ভারত-বাংলাদেশ উভয় দলের খেলোয়াড়দের মধ্যেই বেশ উচ্ছ্বাস-উদ্দীপনা দেখা যাচ্ছে। পাশাপাশি চ্যালেঞ্জ ও শঙ্কাও কাজ করছে তাদের মনে।

ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি ‍উৎসাহ-উদ্দীপনা আর আয়োজনের প্রশংসা করেছেন। পাশাপাশি তিনি মনে করছেন, ৮০ হাজার দর্শকের সামনে খেলাটা সহজ হবে না।

‘খুবই চমৎকার একটি উপলক্ষ্য। এই টেস্টকে সামনে রেখে আগে থেকেই আমরা বেশ উদগ্রীব ছিলাম। এটা আমাদের জন্য চ্যালেঞ্জেরও। এই ম্যাচ নিয়ে সবার মধ্যেই বেশ উৎসাহ-উদ্দীপনা কাজ করছে। এমনটা সবশেষ এখানে দেখেছিলাম পাকিস্তানের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ম্যাচের সময়। সেখানে অবশ্য অনেক বড় বড় তারকা ছিল এবং সেখানেও নানা আয়োজন ও সংর্বধনার ব্যবস্থা ছিল। স্টেডিয়াম ভর্তি দর্শক ছিল। আমি মনে করি কালকেও একইরকম আবহ বিরাজ করবে। হয়তো গোলাপি বলের প্রথম দিবা-রাত্রির টেস্টটি কঠিন কিংবা চ্যালেঞ্জের হতে পারে। কিন্তু বিষয়টা বেশ উত্তেজনাপূর্ণও বটে।

এই মাঠে যখন আমাদের একজন ব্যাটসম্যান আউট হবেন তখনও তিনি সমর্থন পাবেন। আবার যখন একজন বোলার নতুন বল নিয়ে তার বোলিং প্রান্তে দাঁড়িয়ে থাকবেন এবং ৮০ হাজার দর্শক তাকে উদ্দেশ্য করে চিৎকার করবে তখন তাকে খেলাটা সহজ হবে না। সে বেশ উদ্দীপ্ত হবে। প্রথম দিবা-রাত্রির টেস্টের প্রথম ঘণ্টা, প্রথম সেশন, আমি মনে করি খুবই উত্তেজনাপূর্ণ হবে। কারণ সবার আত্মবিশ্বাস ও শক্তিমত্তা থাকবে উপরের লেভেলে। দর্শকরাও বেশ উপভোগ করবে। সুতরাং অবশ্যই এটা একটা মাইলফলক স্পর্শ করার মতো ব্যাপার।’

বৃহস্পতিবার (২১ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টা থেকে অনুশীলনে নামে ভারত। অনুশীলনের ফাঁকে গণমাধ্যমের সংবাদকর্মীদের সঙ্গে তিনি এসব কথা বলেন।

জয়নিউজ/এসআই
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...