বিমানে বিমানবালাকে চুমু খাওয়ার চেষ্টা,বাংলাদেশি গ্রেফতার

0

ভিস্তারার মাস্কট থেকে মুম্বাইগামী বিমানে এক বিমানবালাকে জোর করে জড়িয়ে ধরে চুমু খাওয়ার চেষ্টা এবং অশালীন আচরণ করার দায়ে মুম্বাইতে এক বাংলাদেশি নাগরিককে গ্রেফতার করা হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, তার নাম মহম্মদ দুলাল (৩০)। সে ভিস্তারার একটি আন্তর্জাতিক রুটের ফ্লাইটে কেবিন ক্রুকে আশালীন ইঙ্গিত করেন।

তবে দুলালকে বৃহস্পতিবার (৭ সেপ্টেম্বর) মুম্বাইয়ের আন্ধেরি কোর্টে পেশ করা হলে তার আইনজীবী দাবি করেছেন, ওই ব্যক্তির মানসিক ভারসাম্যজনিত সমস্যা আছে। এছাড়া তিনি ইংরেজি বা হিন্দিও বুঝতে পারেন না।

‘মেন্টাল ডিসঅর্ডার’ আর ভাষাগত সমস্যার জন্যই তার মক্কেলের বিরুদ্ধে ‘মিথ্যা অভিযোগ’ আনা হয়েছে বলে আদালতে আইনজীবী জানান।

আন্ধেরি আদালত শুক্রবার (৮ অক্টোবর) পর্যন্ত তার পুলিশি হেফাজত মঞ্জুর করেছে। ইতোমধ্যে মুম্বাইতে বাংলাদেশ ডেপুটি হাইকমিশনের সঙ্গেও পুলিশ যোগাযোগ করেছে। তারা মহম্মদ দুলালের জামিনের আবেদন ও আইনি সহায়তার ব্যাপারে পদেক্ষেপ নিচ্ছেন।

ঘটনার সূত্রপাত বৃহস্পতিবার ভোরবেলায়, যখন ভিস্তারা এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট ইউকে-২৩৪ ওমানের মাস্কট থেকে রওনা হয়ে ভোর ৪টা নাগাদ মুম্বাইয়ে নামার প্রস্তুতি নিচ্ছিল। অবতরণের ঠিক আধা ঘণ্টা আগে এই অপ্রীতিকর ঘটনার সৃষ্টি হয়।

ওই ভিস্তারা ফ্লাইটের ২২ বছর বয়সী অ্যাটেনডেন্ট অভিযোগপত্রে জানিয়েছেন, তিনি তখন ট্রলি নিয়ে যাত্রীদের খাবারের ট্রে কালেক্ট করছিলেন। হঠাৎই খেয়াল করেন, ১৯ই আসনে বসে থাকা যাত্রী তার দিকে অশ্লীল ইঙ্গিত (ফ্ল্যাশিং) করছেন।

বিষয়টাকে উপেক্ষা করে তিনি ট্রলি নিয়ে এগিয়ে যেতেই ওই যাত্রী (মহম্মদ দুলাল) লাফ দিয়ে তার পাশে বসা আর একজন যাত্রীকে টপকে বিমানের প্যাসেজে এসে দাঁড়ান এবং ওই বিমানবালার দিকে দ্রুত এগিয়ে যান। ওই তরুণী কিছু বুঝে ওঠার আগেই ওই যাত্রী তাকে জড়িয়ে ধরেন এবং জোর করে চুমু খাওয়ারও চেষ্টা করেন।

ততক্ষণে পাশে বসা হতচকিত অন্য যাত্রীরাও ওই ফ্লাইট অ্যাটেনডেন্টের সাহায্যে এগিয়ে আসেন এবং জোর করে মহম্মদ দুলালকে সরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেন। অ্যাটেনডেন্টের চিৎকারে ছুটে আসেন পুরুষ কেবিন ক্রু-রাও।

রীতিমতো ধস্তাধস্তি করে ‘বেপরোয়া’ ওই ব্যক্তিকে ছাড়িয়ে নিতে হয়েছিল বলে পরে পুলিশের কাছে লিখিত অভিযোগে জানানো হয়েছে। কারও হুঁশিয়ারিতেই তিনি কর্ণপাত করছিলেন না।

ঘটনার গুরুত্ব বিবেচনায় ককপিট থেকে ফ্লাইট ক্যাপ্টেনও সঙ্গে সঙ্গে ছুটে আসেন এবং ওই যাত্রীকে ‘আনরুলি প্যাসেঞ্জার’ হিসেবে ঘোষণা করেন। কিছুক্ষণ পরে ফ্লাইট মুম্বাইতে অবতরণ করলে মহম্মদ দুলালকে এয়ারপোর্টে সাহার পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

মুম্বাইতে নামার পর ঢাকার কানেক্টিং ফ্লাইট ধরে ওই যাত্রীর গতকালই বাংলাদেশে যাওয়ার কথা ছিল। তবে ভারতে আইনি প্রক্রিয়া শেষ না হলে তিনি ফিরতে পারছেন না।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, ফ্লাইটে অশ্লীলতা করে এয়ারপোর্টে গ্রেফতার হওয়ার ঘটনা মুম্বাইতে চলতি বছরেই মোট ১২ বার ঘটেছে।

জেএন/পিআর

KSRM
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...
×KSRM