পরিবর্তন আনল গুগল!

0

গুগল তার গ্রাহকের সব ধরনের তথ্য-উপাত্ত হালনাগাদ সংরক্ষণ করে। আর এসব তথ্যের বিবেচনা করেই দৃশ্যমান হয় বিজ্ঞাপন। এখন তথ্যের ভিত্তিতে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার চ্যাটবট বার্ড প্রশিক্ষিত হবে।

গুগল তাদের গোপনীয় নীতিমালা হালনাগাদের কথা জানিয়েছে। নতুন নীতিমালায় গ্রাহকের অজান্তেই তার তথ্য বার্ড চ্যাটবটসহ গুগলের কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার উন্নয়নে ব্যবহৃত হবে।

কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার চ্যাটবটে তথ্য জরুরি উপাত্ত। তথ্য যত বেশি যুক্ত হবে, চ্যাটবট ততটাই ভালো সদুত্তর দেবে। তাই বার্ড ছাড়াও নিজেদের কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা প্রযুক্তিতে গ্রাহকের তথ্য ব্যবহারের কথা সুস্পষ্ট করেছে গুগল।

ফলে গুগল সেবায় নিবন্ধনের সময় দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে বিজ্ঞাপন প্রদর্শনে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার বহুমাত্রিক ব্যবহার করবে গুগল।

হালনাগাদ গোপনীয় নীতিমালায় গুগল বলছে, সবার জন্য উন্মুক্ত অনলাইন তথ্যের ওপর নির্ভর করবে গুগল। নিবন্ধনকারীর তথ্য ব্যবহার করে গুগল বার্ড ও ক্লাউডের কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা প্রযুক্তিকে প্রশিক্ষিত করবে।

ফলে তা ব্যক্তিগত বা গোপনীয় তথ্য হিসেবে নয়, বরং উন্মুক্ত তথ্য হিসেবে বিবেচিত হবে। গুগল সেবায় নিবন্ধনের সময় গ্রাহকের প্রদেয় তথ্য অনলাইনে উন্মুক্ত তথ্য হিসেবে বিবেচ্য হবে।

সার্চ ইঞ্জিনে তথ্য অনুসন্ধানের সঙ্গে গুগল প্রদত্ত যে কোনো প্রযুক্তি ব্যবহার করে গ্রাহকরা অ্যাপ, ব্রাউজারের সেটিংস, অপারেটিং সিস্টেম, মোবাইল নেটওয়ার্ক ও ফোন নম্বর সংশ্লিষ্ট তথ্য সংগ্রহ করে গুগল।

সার্চ কনটেন্টে গ্রাহকের কী ধরনের তথ্য-উপাত্ত বিবেচনায় নেবে, তাও এখন থেকে প্রয়োজনে ব্যবহার করার সামর্থ্য রাখবে গুগল।

জেএন/পিআর

KSRM
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...
×KSRM