হাটহাজারীতে ৮ পাষণ্ড আটক, ২ অপহৃত উদ্ধার

0

চট্টগ্রামের হাটহাজারীর দুর্গম পাহাড়ি এলাকা উদালিয়া থেকে ৮ জন “নির্দয় ও পাষণ্ড’ ব্যক্তিকে আটক করেছে র‌্যাব। তারা মধ্যযুগীয় কায়দায় বর্বরভাবে নির্যাতন চালাত অপহৃতদের। তাদের ডেবা থেকে দুই অপহ্নতকে আজ বৃহস্পতিবার উদ্ধার করা হয়েছে।

আটককৃতরা হলেন-শাহাদাৎ হোসেন চৌধুরী প্রকাশ কালু চেয়ারম্যান (৬৮), মোঃ খোকন (৩২), মোঃ আলা উদ্দিন (৩৭), মোঃ ইউসুফ (৩৬), শহিদুল্লাহ রাজু (৩৩), মোঃ নাজিম (৩৬), মোঃ জহিরুল ইসলাম (৪৮) ও মোঃ সেলিম (৫১)।

র‌্যাব-৭ এর সিনিয়র সহকারি পরিচালক মো. আবছার উদ্দিন বলেন, চক্রটি ভিকটিমদের পরিবারের কাছে মুক্তিপণ আদায় করার পরও ভিকটিমদের ছেড়ে না দিয়ে খালি স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নিত। পরে তাদের মধ্যযুগীয় কায়দায় দূর্গম পাহাড়ী এলাকায় অবস্থিত ইটভাটায় দিনে জবর দস্তিমূলকভাবে কাজ করাত এবং রাতের বেলা পায়ে শেকল বেঁধে খুঁটির সাথে তালা মেরে রাখত।

র‌্যাব সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলেছেন, নগরের উত্তর হালিশহর এলাকায় বাসা ভাড়া নিয়ে পরিবারসহ বসবাস করতেন এক ব্যক্তি। তিনি রিকশা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করতেন। গত ২০ জানুয়ারি রাতে ভিকটিম রিকশা নিয়ে বাড়ী থেকে বের হয় হয়ে অপহ্নত হয়। পরদিন ২১ জানুয়ারি ভিকটিমের বাবার মোবাইলে জনৈক অজ্ঞাতনামা ব্যক্তি ফোন করে দেড় লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে এবং চাঁদার টাকা না দিলে ভিকটিমকে মেরে ফেলার ভয়ভীতি ও হুমকি প্রদান করে। তার পরিবার বিষয়টি র‌্যাব-৭, চট্টগ্রামকে অবহিত করেন। এরপর জড়িত আসামীদের গ্রেফতারে ব্যাপক গোয়েন্দা নজরদারি অব্যাহত রাখে। এরই ধারাবাহিকতায় র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম এর একটি আভিযানিক দল ২৬ জানুয়ারি হাটহাজারী থানাধীন বারৈহাট এলাকার একটি ভাড়া ঘর হতে অপহৃত ভিকটিমসহ ২ জন ভিকটিমকে পায়ে লোহার শিকল এবং হাত বাঁধা অবস্থায় উদ্ধার করেন। এসময় অপহরণকারী চক্রের ৮ জনকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।

জেএন/এফও/এমআর

KSRM
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...
×KSRM