নেপালের উদ্বৃত্ত বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী মূল্যে বাংলাদেশে রপ্তানি হবে

চিটাগাং চেম্বারে নেপাল রাষ্ট্রদূত

0

বাংলাদেশে নিযুক্ত নেপালের রাষ্ট্রদূত ঘনশ্যাম ভান্ডারী ২২ জানুয়ারি ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারে দি চিটাগাং চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি’র পরিচালকমন্ডলীর সাথে এক মতবিনিময় সভায় মিলিত হন। চেম্বার প্রেসিডেন্ট মাহবুবুল আলম’র সভাপতিত্বে সিনিয়র সহ-সভাপতি তরফদার মোঃ রুহুল আমিন ও সহ-সভাপতি সৈয়দ মোহাম্মদ তানভীর বক্তব্য রাখেন।

এ সময় চেম্বার পরিচালকবৃন্দ এ. কে. এম. আক্তার হোসেন, জহিরুল ইসলাম চৌধুরী (আলমগীর), অঞ্জন শেখর দাশ, মোঃ ওমর ফারুক, শাহজাদা মোঃ ফৌজুল আলেফ খান, ইঞ্জিনিয়ার ইফতেখার হোসেন, মোঃ ইফতেখার ফয়সাল, এস. এম. তাহসিন জোনায়েদ, দূতাবাসের থার্ড সেক্রেটারী সুভাষ মাগার উপস্থিত ছিলেন।

নেপাল রাষ্ট্রদূত ঘনশ্যাম ভান্ডারী বলেন – শিক্ষা, সংস্কৃতি ও ভাষাগত মিল থাকায় বাংলাদেশের সাথে নেপালের গভীর সম্পর্ক রয়েছে। তিনি বলেন-নেপালের উদ্বৃত্ত বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী মূল্যে বাংলাদেশে রপ্তানি হবে। তিনি বাংলাদেশ-ভুটান-ইন্ডিয়া-নেপাল (বিবিআইএন)’র আওতায় বাণিজ্য, বিনিয়োগ এবং ট্রানশিপমেন্টের মাধ্যমে এ অঞ্চলে বাণিজ্যিক সম্পর্ক আরো জোরদারের আশাবাদ ব্যক্ত করেন। এছাড়া বাংলাদেশের সাথে কার্গো এন্ড প্যাসেঞ্জার ভেহিকেল চালু করা গেলে ব্যবসা-বাণিজ্য এবং পর্যটন সেক্টরে দু’দেশের সম্ভাবনা আরো বৃদ্ধি পাবে।

বিটুবি সম্পর্ক জোরদার করার জন্য নেপালী ব্যবসায়ী প্রতিনিধিদল নিয়ে চিটাগাং চেম্বার সফরে আসার আশাবাদ করার পাশাপাশি চট্টগ্রামের ব্যবসায়ী প্রতিনিধিদলকে নেপাল সফরে আমন্ত্রণ জানান রাষ্ট্রদূত।

চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম বলেন-বাংলাদেশের সাথে নেপালের রয়েছে বন্ধুত্বপূর্ণ বাণিজ্য সম্পর্ক। বাংলাদেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে অধ্যয়ন করছে অনেক নেপালী শিক্ষার্থী। নেপাল থেকে মসলা, কৃষি বীজ ও হস্তশিল্প আমদানি হয় বাংলাদেশে এবং বাংলাদেশ থেকে টেক্সটাইল, পাটজাত পণ্য এবং ইলেক্ট্রনিক্স সামগ্রী রপ্তানি হয় নেপালে। তাই স্থলবেষ্টিত দেশটিকে চট্টগ্রাম বন্দর ব্যবহার করে তাদের বৈদেশিক বাণিজ্য আরো সম্প্রসারণ করার আহবান জানান চেম্বার সভাপতি।

চেম্বার সিনিয়র সহ-সভাপতি তরফদার মোঃ রুহুল আমিন বলেন- চট্টগ্রাম দেশের মোট জিডিপির ২০-২৫% অবদান রাখে। চট্টগ্রামে রয়েছে দেশের উল্লেখযোগ্য ভারী শিল্প প্রতিষ্ঠান। কৃষি ও হস্তশিল্প সেক্টরে দু’দেশের মধ্যে বিনিয়োগের যথেষ্ট সম্ভাবনা রয়েছে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

চেম্বার সহ-সভাপতি সৈয়দ মোহাম্মদ তানভীর নেপালে উৎপাদিন বিভিন্ন পণ্য এদেশের ব্যবসায়ী ও ভোক্তাদের সাথে পরিচিত করার উপর গুরোত্বারোপ করে চট্টগ্রামে নেপালী পণ্যের প্রদর্শনী আয়োজন এবং দুই দেশের ব্যবাসায়ীদের মধ্যে সংযোগ স্থাপনের ক্ষেত্রে চিটাগাং চেম্বার সহায়তা করতে পারে বলে অভিমত ব্যক্ত করেন।

উল্লেখ্য নেপালী রাষ্ট্রদূত ওয়ার্ড ট্রেড সেন্টারে চেম্বার কর্র্তৃক আয়োজিত চলমান ৪র্থ চট্টগ্রাম আইটি ফেয়ার -২০২৩ পরিদর্শন করেন।
জেএন/এফও/এমআর

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...