আনোয়ারা মিয়াঝী পাড়া সড়ক নির্মাণে অনিয়মের অভিযোগ

পুরনো ইট কনক্রিটে রাস্তার আরসিসি ঢালাই!

0

আনোয়ারা উপজেলা বারখাইন ইউনিয়নের তৈলারদ্বীপ ৯নং ওয়ার্ডে মিয়াঝী পাড়া সড়কে ১৮/২০ বছরের পুরানো ময়লাযুক্ত ইটের কংক্রিট দিয়ে রাস্তার আর সিসি ঢালাই কাজ করার অভিযোগ উঠেছে।

এ ব্যাপারে প্রতিবাদ করলে এলাকাবাসীকে নানান ভয় ভীতি দেখানো হচ্ছে বলে অভিযোগ ৯নং ওয়ার্ডের মেম্বার ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নাছির উদ্দীনের।

এলাকাবাসীরা জানান, মিয়াঝি পাড়া সড়কটি এলাকার অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ সড়ক। সড়কটিতে আরসিসি ঢালাই কাজ চলছে। নতুন ইটের কংক্রিট দিয়ে আরসিসি ঢালাই করার প্রস্ততি চলছে।

তবে ২০ বছর আগের পুরাতন ও নষ্ট ইট ভেঙ্গে কংক্রিট তৈরি করা হচ্ছে। এতে দুর্বল কংক্রিটগুলোর কারণে আরসিসির আয়ুকাল কমে যাবে। খুব দ্রুত সময়ে সড়কটি নষ্ট হয়ে যাবে। এলাকাবাসীর অভিযোগ, আরসিসি ঢালাইয়ে ব্যাপক অনিয়ম হচ্ছে।

জানা গেছে, বারখাইন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক ইউপি সদস্য জাহাঙ্গীর আলম সড়কটির আরসিসি ঢালাইয়ের কাজটি পেয়েছেন।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, ২০০১ সালে সড়কটিতে ডাবল ব্রীক সলিং হয়। এরপর আর কোন ধরনের পরিবর্তন হয়নি। ১৮/২০ বাছরের পুরাতন ইটের কংক্রিট দিয়ে রাস্তার আর সিসি ঢালাই কাজের প্রস্তুতি দেখে এলাকাবাসীর মনে বিরূপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে।

৯নং ওয়ার্ডের বর্তমান মেম্বার ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নাছির উদ্দীন বলেন, ১৮/২০ বছরের পুরানো ময়লাযুক্ত ইটের কংক্রিট দিয়ে রাস্তার আর সিসি ঢালাই কাজ করলে রাস্তাটি দির্ঘস্থায়ী হবেনা। যানবাহন চলাচল করার সাথে সাথে ফাটল সৃষ্টি হবে।

সাইফুদ্দিন নামের এক ব্যক্তি বলেন, জাহাঙ্গীর মেম্বার ভূমি মন্ত্রী থেকে বরাদ্দ এনে তার ঘরের পাশে পুকুরে গাইড ওয়াল, তার বাড়ীর রাস্তা, ও চার পাশে এল ইডি সোলারসহ তার নিজের জন্য করলেও আমাদের এলাকার রাস্তাটির জন্য মন্ত্রী মহোদয়ের দেওয়া বিশেষ বরাদ্দের কাজের এইরকম অনিয়ম আমরা মেনে নিবনা। প্রয়োজনে আইনের আশ্রয় নেব।

অভিযোগের বিষয়ে জাহাঙ্গীর আলমের সাথে যোগাযোগ করার চেস্টা করা হলেও তিনি ফোন ধরেননি।

জেএন/এফও/এমআর

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...