বিশ্বকাপ ফুটবলের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে পারফর্ম করবে না শাকিরা-দুয়া

0

আর মাত্র কয়েকঘণ্টা। বিশ্বজুড়ে ফুটবল প্রিয় মানুষের সবচেয়ে বৃহৎ উৎসব শুরু হচ্ছে। ৩২ দেশের অংশগ্রহণে রবিবার মরুর দেশ কাতারে শুরু হচ্ছে বিশ্ব ক্রীড়াঙ্গনের সবচেয়ে আলোচিত ও আকর্ষণীয় ইভেন্ট বিশ্বকাপ ফুটবল।

সময় যত এগিয়েছে কাতারের ২০২২ বিশ্বকাপ আয়োজনের বিতর্ক আর সমালোচনা ততই বেড়েছে। মধ্যপ্রাচ্যের দেশটিকে বিশ্বকাপ আয়োজনের দায়িত্ব দেওয়ার কারণে ফিফাকেও শুনতে হয়েছে নানা গালমন্দ। মানবাধিকারের চেয়ে আর্থিক লাভটাই বেশি গুরুত্ব পেয়েছে ফিফার কাছে- এমনটাই দাবি ফুটবল ভক্তদের।

এবারের আয়োজন নিয়ে নতুন করে সমালোচনায় মুখর হয়েছেন বিভিন্ন তারকারা। এমনকি খেলোয়াড়রাও বলছেন, তাদের বাহুতে এলজিবিটি (সমকামী) সম্প্রদায়ের সমর্থনে রংধনু পতাকা শোভা পাবে।

তবে কাতার বিশ্বকাপের জমকালো উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পারফর্ম করার জন্য তারকা শিল্পী পেতে বেশ পরিশ্রম হয়েছে বিশ্বকাপ অ্যাম্বাসেডর খালিদ সালমানের।

২০০৬, ২০১০ এবং ২০১৪ বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ছিল কলাম্বিয়ান পপ তারকা শাকিরার দুর্দান্ত উপস্থিতি।

বার্সেলোনার স্প্যানিশ ফুটবলার জেরার্ড পিকের সঙ্গে বিচ্ছেদ এবং নিজের একক অ্যালবামের কারণে গত কয়েক মাস ধরে শাকিরার নাম মানুষের মুখে মুখে। কিন্তু জনপ্রিয় এ তারকা কাতার বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান মাতাতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন।

যদিও শাকিরার মুখপাত্র সংবাদ সম্মেলনে জানান, উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পারফর্ম না করলেও বিশ্বকাপের ফাইনাল কিংবা অন্য কোনো অংশে তাকে দেখা যাবে নাকি তা এখনও অনিশ্চিত।

অন্যদিকে, বর্তমান সময়ে বিশ্বব্যাপী জনপ্রিয় সঙ্গীত তারকাদের মধ্যে অন্যতম হলেন ব্রিটিশ গায়িকা দুয়া লিপা। এই দুজনকেই সবচেয়ে এগিয়ে রাখা হয়েছিল আসর মাতাতে।

তবে স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম মার্কার এক প্রতিবেদন মতে, দুয়া লিপা এবং শাকিরা দুজনই কাতার বিশ্বকাপের উদ্বোধনী মঞ্চ মাতানোর প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছেন। পাশাপাশি কড়া ভাষায় করেছেন সমালোচনাও।

কাতার বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান মাতানোর প্রস্তাব ফিরিয়ে দেওয়ার প্রসঙ্গে দুয়া লিপা বলেন, আমি দূর থেকে এবার ইংল্যান্ড দলকে সমর্থন দেবো। বিশ্বকাপ আয়োজনের দায়িত্ব পাওয়া কাতার মানবাধিকার বিষয়ে সব প্রতিশ্রুতি পূরণ করলে আমি দেশটিতে সফর করার কথা ভাববো।

জেএন/পিআর

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...