যুক্তরাষ্ট্রের সিনেটের নিয়ন্ত্রণ ডেমোক্র্যাটদের হাতেই থাকল

0

মধ্যবর্তী নির্বাচনে নেভাদায় জয়ী হয়েছেন ডেমোক্র্যাট প্রার্থী ক্যাথরিন কর্টেজ। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সিনেটের নিয়ন্ত্রণ ডেমোক্র্যাটদের হাতেই থাকল।

স্থানীয় সময় শনিবার ডেমোক্র্যাটিক সিনেটর ক্যাথরিন কর্টেজ মাস্তো রিপাবলিকান প্রার্থী এডাম ল্যাক্সাল্টকে হারিয়ে সিনেটর নির্বাচিত হয়েছেন। আর এই জয়েই সিনেটে সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করে ডেমোক্র্যাট পার্টি।

এক প্রতিবেদনে বিবিসি জানিয়েছে, ৫৮ বছর বয়সী ক্যাথরিন কর্টেজ মাস্তোর পুরো নাম বহু ভোটার জানেনই না। তারা ক্যাথরিনকে কেবল সিনেটর হিসেবেই চেনেন।

তার বাবা ম্যানি ছিলেন নেভাদার খ্যাতনামা ব্যক্তি। ছোট পদে কর্মজীবন শুরু করলেও শেষ পর্যন্ত সরকারি সংস্থার প্রেসিডেন্ট পর্যন্ত হয়েছিলেন। নেভাদায় দীর্ঘ সময়ের ডেমোক্র্যাটিক সিনেটর হ্যারি রিডের সঙ্গে বন্ধুত্ব করেছিলেন তিনি। পরে ক্যাথরিনকে নিজের স্থলাভিষিক্ত করেছিলেন হ্যারি। সেই ক্যাথরিনের জয়ে সিনেটে ডেমোক্র্যাটদের দখলে এখন ৫০টি আসন।

১০০ আসনের সিনেটের নিয়ন্ত্রণ পেতে যেকোনো দলের ৫১ আসন লাগবে।। সবশেষ ফলাফলে ডেমোক্র্যাট ও রিপাবলিকান পার্টির নিয়ন্ত্রণে এসেছে যথাক্রমে ৫০ ও ৪৯টি আসন। এর মধ্যে জর্জিয়ায় আগামী ৬ ডিসেম্বর দ্বিতীয় দফায় ভোট হওয়ায় কথা রয়েছে। যদি সেখানে রিপাবলিকানরা জিতেও যায় তবে ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিসের ভোট নিয়ে সিনেট নিয়ন্ত্রণ করবে ডেমোক্র্যাটরা।

এর আগে অ্যারিজোনা অঙ্গরাজ্যে জয় পায় ডেমোক্র্যাট প্রার্থী মার্ক কেলি। এর মধ্য দিয়ে রিপাবলিকান পার্টি ও ডেমোক্র্যাটরা সিনেট দখলে সমানে সমান হয়েছিল।

যুক্তরাষ্ট্রে এবারের মধ্যবর্তী নির্বাচনে বাইডেন ও ট্রাম্পের ব্যালট নেই। এটি শুধু কংগ্রেসের নির্বাচন। যেটির দুটি অংশের মধ্যে একটি হলো হাউজ অব রিপ্রেজেনটেটিভ এবং অপরটি সিনেট। সংসদীয় এই ভোট প্রতি দুই বছর অন্তর অন্তর হয়। প্রেসিডেন্টের ৪ বছরের মেয়াদের মাঝামাঝি সময়ে হয় বলে এটিকে মধ্যবর্তী মেয়াদের নির্বাচন বলা হয়।

গত দুই বছর ধরে ডেমোক্র্যাটরা রিপ্রেজেনটেটিভ হাউজ ও সিনেটে সংখ্যাগরিষ্ঠতা ধরে রেখে কাজ করছে। যেটি প্রেসিডেন্ট বাইডেনের জন্য যে কোনো আইন পাসে সহায়ক হয়।

জেএন/এমআর

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...