মাদক কারবারির পেটে ছিল ইয়াবা,ধরা পড়েছে এক্সরেতে

0

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার চৌমুহনীতে যাত্রীবাহি একটি বাসে তল্লাশী চালিয়ে ইয়াবার একটি চালানসহ এক মাদক কারবারিকে আটক করেছে জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর।

গোপন সোর্সের খবরে বিশেষ অভিযান চালিয়ে বুধবার (৯ নভেম্বর) দিবাগত রাত ১০টার দিকে তাকে আটক করা হয়। এসময় তার কাছ থেকে মোট দুই হাজার ৮শ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। তারমধ্যে ১৩শ পিস ইয়াবা ছিলো তার পেটে। এক্সরেতে ধরা পড়ে।

আটক দেলু লক্ষ্মীপুর জেলার রামগঞ্জ উপজেলার ভোলাকোট ইউনিয়নের আতাকরা গ্রামের আকুর উদ্দিন বেপারী বাড়ির আবুল খায়েরের ছেলে বলে জানা গেছে।

জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের তথ্য মতে, কক্সবাজার থেকে চট্রগ্রাম হয়ে বিশেষ কায়দায় নোয়াখালীর চৌমুহনী চৌরাস্তায় একটি ইয়াবার চালান আসছে-গোপন সংবাদে রাতে চৌমুহনী লাইফ কেয়ার হাসপাতালের সামনে অবস্থান নেয় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সদস্যরা।

এসময় কক্সবাজার থেকে ছেড়ে আসা যাত্রীবাহী জোনাকি সার্ভিসের একটি গাড়িতে তল্লাশি করে এই মাদক কারবারিকে আটক করা হয়।

তার সঙ্গে থাকা একটি ব্যাগে তল্লাশি চালিয়ে প্রথমে ১৫০০ পিস ইয়াবা ও পরে এক্সরে করে তার পেটে কিছু আছে নিশ্চিত হয়ে বিশেষ কায়দায় আনা আরও ১শ পিস ইয়াবা জব্দ করা হয়।

জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ আবদুল হামিদ বলেন, দেলোয়ার হোসেন দেলু একজন শীর্ষ মাদক কারবারি। তার বিরুদ্ধে মাদকের ঘটনায় একাধিক মামলা রয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার (১০ নভেম্বর) তার বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করে বেগমগঞ্জ মডেল থানায় হস্তান্তর করা হবে।

জেএন/পিআর

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...