শীতলক্ষ্যায় মিলল বুয়েট শিক্ষার্থীর মরদেহ

0

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে শীতলক্ষ্যা নদী থেকে ফারদিন নূর পরশ (২৪) নামে এক বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

সোমবার বিকালে বনানী ঘাট সংলগ্ন লক্ষ্মী নারায়ণ কটন মিলের পিছনে শীতলক্ষ্যা নদীতে ভাসমান অবস্থায় মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

ফারদিন নূর পরশ নারায়ণগঞ্জের দেউলপাড়া কুতুবপুরের নয়ামাটি এলাকার কাজী নুরুদ্দীন রানার ছেলে। তিনি বর্তমানে ঢাকার ডেমরার শান্তিবাগ কোনাপাড়া এলাকায় থাকতেন।

তিনি বুয়েটের সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র ছিলেন।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশের পরিদর্শক (তদন্ত) হাফিজুর রহমান মানিক জানান, বিকালের দিকে শীতলক্ষ্যা নদীতে ভাসমান অবস্থায় এক অজ্ঞাত যুবকের লাশ ভাসতে দেখে আমরা নারায়ণগঞ্জ নৌ-পুলিশকে জানাই। নৌ-পুলিশ নদী থেকে লাশ উত্তোলন করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য নিয়ে যায়। পরবর্তীতে লাশের পরিচয় পাওয়া যায়।

তিনি আরও জানান, ফারদিন নূর পরশ গত ৪ নভেম্বর থেকে নিখোঁজ ছিলেন। নিখোঁজের পর ভিকটিমের বাবা কাজী নুরুদ্দিন ৫ নভেম্বর রামপুরা থানায় একটি জিডি (যার নম্বর-২৮১) করেন।

নারায়ণগঞ্জ নৌ-থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান মনির বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, লাশটি উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের পর মৃত্যুর প্রকৃত কারণ বলা যাবে। এ বিষয়ে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।
জেএন/এমআর

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...