বাল্যবিয়ে করতে এসে শ্রীঘরে বর

0

দিনাজপুরে বাল্যবিয়ে করতে এসে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড হওয়ায় বর মো. মওলাকে (১৮) বাসর ঘরের পরিবর্তে যেতে হয়েছে জেলে।

শুক্রবার (৭ অক্টোবর) সন্ধ্যায় দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলার চকপাড়া শাহিনপুকুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। বর মওলা ঘোড়াঘাট উপজেলার সিংড়া ইউনিয়নের মগলিশপুর গ্রামের আব্দুল হামিদের ছেলে।

জানা যায়, উপজেলার চকপাড়া শাহিনপুকুর এলাকায় একটি বিয়ে বাড়িতে চলছিল ধুমধাম অনুষ্ঠান আর গান-বাজনা। চারিদিকে হই হুল্লোড়। এ দিকে ছেলেপক্ষ হাজির। কিছুক্ষণের মধ্যে শেষ হবে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা।

ঠিক এমন সময় সেই অনুষ্ঠানে হাজির বিরামপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পরিমল কুমার। বিয়ের স্টেজ ছেড়ে দৌড়ে পালালেন বরসহ ছেলেপক্ষ।

পরে বাল্যবিয়ের অভিযোগে বর আব্দুল হামিদকে ৩ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড ও মেয়ের পরিবারকে ৫ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেয়া হয়।

ইউএনও পরিমল কুমার বলেন, বৃহস্পতিবার (৬ অক্টোবর) বিকেলে তারা খবর পান যে, উপজেলার চকপাড়া শাহিনপুকুর এলাকায় বাল্যবিয়ের আয়োজন হচ্ছে। এমন সংবাদ পেয়ে পুলিশ পাঠিয়ে বাল্যবিয়ে না দিতে ওই পরিবারকে সতর্ক করে।

শুক্রবার আবারও খবর আসে তারা নির্দেশনা অমান্য করে ১৪ বছরের মেয়ের সঙ্গে ১৮ বছরের ছেলের বিয়ের দিচ্ছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশসহ চকপাড়া শাহিনপুকুর এলাকায় বিয়ে বাড়িতে হাজির হই।

তিনি বলেন, এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে বরের লোকজন ও বর বিয়ের স্টেজ ছেড়ে দৌড় দিয়ে পালানোর চেষ্টা করে। পরে বরসহ তাদের অভিভাবককে আটক করা হয়।

জিজ্ঞাসাবাদে বাল্যবিয়ের সত্যতা পাওয়ায় বর মওলাকে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড ও মেয়ের পরিবারকে ৫ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেয়া হয়। এছাড়াও অন্যান্যদের সতর্ক করা হয়।

জেএন/পিআর

KSRM
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...
×KSRM