ভারতে কারাভোগ শেষে দেশে ফিরলেন ৪ নারী

0

ভালো কাজের প্রলোভনে ভারতে পাচারের শিকার চার বাংলাদেশি নারীকে ট্রাভেল পারমিটে বেনাপোল দিয়ে হস্তান্তর করেছে ভারতীয় পুলিশ। গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ভারতের পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশ পাচার হওয়া নারীদের বেনাপোল আন্তর্জাতিক চেকপোস্ট ইমিগ্রেশন পুলিশের হাতে হস্তান্তর করেন।

ফেরত আসা নারীরা হলেন, তানজিলা আক্তার (২৩), সাবিরা খাতুন (২০), শিল্পী খাতুন (২৬) ও রহিমা খাতুন (২৭)। তাদের বাড়ি যশোর ও গাজীপুর জেলার বিভিন্ন এলাকায়।

বেনাপোল ইমিগ্রেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম আজাদ বলেন, ‘ভালো কাজের আশায় দালালদের খপ্পরে পড়ে ভারতে পাড়ি জমান। পরে তাঁরা সে দেশের পুলিশের হাতে আটক হয়ে জেল হাজতে যায়। প্রায় তিন বছর পর বিশেষ ট্রাভেল পারমিটের মাধ্যমে দেশে ফেরত আসে। ইমিগ্রেশনের আনুষ্ঠানিকতা শেষে তাদের বেনাপোল পোর্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। সেখান থেকে চার নারীকে পরিবারের কাছে পৌঁছে দিতে যশোর জাস্টিস অ্যান্ড কেয়ার নামে একটি এনজিও সংস্থা গ্রহণ করেছেন।’

যশোর জাস্টিজ অ্যান্ড কেয়ারের ফিল্ড কর্মকর্তা রোকেয়া খাতুন বলেন, ‘ভাল কাজের প্রলোভনে সীমান্তের অবৈধ পথে তিন বছর আগে দালালের মাধ্যমে ভারতে গিয়েছিলেন চার নারী। এ সময় অবৈধ অনুপ্রবেশের অভিযোগে ভারতীয় পুলিশ তাঁদের আটক করে জেলে পাঠায়। পরে আইনি সহয়তা দিতে আদালত থেকে ছাড়িয়ে ভারতীয় একটি মানবাধিকার সংস্থা তাঁদের হেফাজতে নেয়। দীর্ঘ তিন বছর পর দুই দেশের সরকারের সহযোগিতায় ট্রাভেল পারমিটে দেশে ফেরার সুযোগ পায়। ফেরত আসা বাংলাদেশিরা যদি পাচারকারীদের সনাক্ত করে আইনি সহায়তা চায় সংস্থার পক্ষ থেকে সেটা দেওয়া হবে।’

তিনি বলেন, ‘এই চার নারীকে বেনাপোল থেকে যশোরে নিজেদের সংস্থার শেল্টার হোমে রাখা হবে। পরে অভিভাবকদের সঙ্গে যোগাযোগ করে হস্তান্তর করা হবে।’

জেএন/এও

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...