সাগরপথে মালয়েশিয়া পাড়ি দেওয়ার চেষ্টা, ৭ রোহিঙ্গাসহ আটক ২২

0

টেকনাফে মালয়েশিয়ায় পাচারের উদ্দেশ্যে নিয়ে আসা ৭ রোহিঙ্গা ও ১৫ বাংলাদেশিকে উদ্ধার করেছে বিজিবি ও পুলিশ।

মঙ্গলবার (২০ সেপ্টেম্বর) রাতে টেকনাফ পৌরসভার নাইট্যপাড়া এলাকায় একটি বাড়ি থেকে তাদেরকে উদ্ধার করা হয়।

টেকনাফ ২ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্ণেল শেখ খালিদ মোহাম্মদ ইফতেখার গণমাধ্যমকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, নাইট্যংপাড়া মৃত নজির আহমেদের ছেলে জামাল হোসেনের বাড়িতে মালয়েশিয়া পাচারের উদ্দেশ্যে ৭ রোহিঙ্গা ও ১৫ বাংলাদেশিকে নিয়ে এসে জড়ো করে রাখা হয়েছে এমন খবরের ভিত্তিতে সন্ধ্যে সাড়ে ৭টার দিকে বিজিবি এবং পুলিশ ওই বাড়িতে অভিযান চালিয়ে মালয়েশিয়ায় গমনেচ্ছু ৭ রোহিঙ্গা ও ১৫ জন বাংলাদেশি নাগরিককে উদ্ধার করা হয়।

তিনি আরও জানান, মানবপাচারকারী জামাল হোসেন পালিয়ে যাওয়ায় তাকে গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়নি।

উদ্ধারকৃতরা জিজ্ঞাসাবাদে জানায় জামাল হোসেন তাদের সাথে টেকনাফ পৌরসভার নাইট্যংপাড়া এলাকার মৃত সৈয়দ হোসেনের ছেলে মো. ইউসুফ প্রকাশ আঙ্গুরী (৩০), একই এলাকার সৈয়দুল ইসলামের কবির হোসেন (২৫), নজির আহমেদের ছেলে মো. ইলিয়াস (৩০) এবং হোসেন আহমেদের ছেলে ইব্রাহিম (৪০) সহযোগী হিসাবে জড়িত রয়েছে। মানবপাচারকারী ও তার সহযোগীদের গ্রেপ্তার করতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে। উদ্ধারকৃতদের টেকনাফ থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

টেকনাফ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হাফিজুর রহমান জানান, নাইট্যংপাড়া এলাকায় জামাল নামে এক ব্যক্তির বাড়িতে রোহিঙ্গাসহ কিছু লোকের অবস্থানের খবর পেয়ে যৌথ অভিযান চালিয়ে তাদেরকে উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিকভাবে তারা সাগরপথে মালয়েশিয়া যাওয়ার জন্য সেখানে অবস্থান করছে বলে জানিয়েছে। উদ্ধার সাত রোহিঙ্গা বিজিবির হেফাজতে রয়েছে । এছাড়া বাকি পনেরো বাংলাদেশিকে থানায় নেয়া হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

জয়নিউজ/হিমেল/পিডি

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...