ভূমি অফিসের লোক পরিচয়ে দীর্ঘ ৭ বছর দালালি,অবশেষে ধরা

0

দীর্ঘ প্রায় ৭ বছর ধরে অন্যের নামজারী করতে বিভিন্ন ভূমি অফিসের লোক পরিচয় দিয়ে বহু দালালির মাধ্যমে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন ৬৫ বছর বয়সী বৃদ্ধ মো ইসহাক।

সম্প্রতি তিনি চট্টগ্রাম মহানগরীর কাট্টলী সার্কেল ভূমি অফিসেই বিচরণ শুরু করেন। অন্যদিকে সাম্প্রতিক সময়ে বিভিন্ন ভূমি অফিস থেকে অসংখ্য দালালি ও অনিয়মের অভিযোগ পেয়ে দালালমুক্ত ভূমি সেবা দিতে তৎপরতা বাড়িয়ে দেন এসিল্যান্ডগণ।

তারই ধারাবাহিকতায় কাট্টলী সার্কেল ভূমি অফিসের বাইরের কার্যক্রম নিয়মিত পর্যবেক্ষণ শুরু করেন এসিল্যান্ড। কয়েকদিনের পর্যবেক্ষণে সফলতা মিলেছে আজ রবিবার দুপুর ১২টায়।

অফিসের বাইরে অনেকের সাথে কথা বলে চুক্তি করে নামজারি করাতে আসলে দীর্ঘদিনের দালাল মো ইসহাককে হাতেনাতে আটক করতে সক্ষম হয়।

তবে বয়সের বিষয়টি বিবেচনা নিয়ে শাস্তিস্বরুপ তাকে দশ হাজার টাকা জরিমানা করা হয় এবং ভবিষ্যতে এ ধরনের কাজ করবে না মর্মে মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়।

সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে দালাল ইসহাককে আটকের পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে নিজেই স্বীকার করেছেন, মোটা অঙ্কের টাকার বিনিময়ে সে দীর্ঘ ৫-৭ বছর ধরে বিভিন্ন ভূমি অফিসে গিয়ে মানুষের নামজারি মামলা ও কোর্টের মামলা নিয়ে দালালি করে আসছেন।

এসব তথ্য নিশ্চিত করে সহকারী কমিশনার ( ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উমর ফারুক বলেন, আটক দালাল ইসহাক বিভিন্ন তদবির নিয়ে প্রায় অফিসে আসেন।

কয়েকদিন ধরে ভূমি অফিসের সিসিটিভি ফুটেজ পর্যবেক্ষণ করে দেখা যায়, বিভিন্ন ব্যক্তি ভূমি অফিসে নামজারি করতে আসলে ইসহাক ওই অফিসের লোক পরিচয় দিয়ে কাজ করে দেওয়ার নামে মোটা অংকের টাকা দাবী করছেন।

সেবাগ্রহীতা সেজে আজ তাকে হাতেনাতে আটক করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে তিনি সকল কিছু স্বীকার করেন। তবে বয়সের বিষয়টি বিবেচনা করে তাকে অর্থদণ্ড প্রদান এবং মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়।

এদিকে ভূমি অফিসে কোন ধরনের দূর্নীতি বরদাস্ত করা হবে না জানিয়ে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) নাজমুল আহসান বলেন, অফিসে বা অফিসের বাইরের যে কেউ হোক তাকে শাস্তি পেতেই হবে। দালালমুক্ত ভূমি সেবা দিতে এসিল্যান্ডগণ তৎপর রয়েছেন।

জেএন/পিআর

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...