রামগড়ে ১৪৪ ধারা জারি

0

খাগড়াছড়ির রামগড় উপজেলায় একই স্থানে এবং একই সময়ে বিএনপি ও ছাত্রলীগ পৃথক কর্মসূচির ডাক দেওয়ায় অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে সোমবার (২৯ আগস্ট) রামগড় পৌরসভার মাস্টারপাড়া থেকে পৌর ভবন ও তৎসংলগ্ন এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি করেছে প্রশাসন।

রোববার (২৮ আগস্ট) রামগড় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট খোন্দকার মো. ইখতিয়ার উদ্দিন আরাফাত এক আদেশে ১৪৪ ধারা জারি করেন।

জানা গেছে, দ্রব্যমূল্যের লাগামহীন ঊর্ধ্বগতি ও পুলিশের গুলিতে ভোলায় দুই নেতা হত্যার প্রতিবাদে সোমবার (২৯ আগস্ট) সোমবার খাগড়াছড়ির রামগড় সরকারি বিদ্যালয় সংলগ্ন স্মৃতিসৌধের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মিছিলের কর্মসূচি ঘোষণা দেয় উপজেলা বিএনপি। একই সময়ে একই স্থানে শোকাবহ আগস্ট মাস উপলক্ষে শোক র্যালি ও আলোচনা সভার কর্মসূচি ডাক দেয় উপজেলা ছাত্রলীগ।

ছাত্রলীগ ও বিএনপির পাল্টাপাল্টি সমাবেশ আহ্বানকে কেন্দ্র করে সকল ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে সোমবার (২৯ আগস্ট) সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত রামগড়ে ১৪৪ ধারা জারি করে রামগড় উপজেলা প্রশাসন। এই সময়ের মধ্যে সকল প্রকার সভা-সমাবেশ, মিছিল, লোক সমাগম এবং চার জনের অধিক ব্যক্তির একত্রে চলাচল নিষিদ্ধ করা হয়।

রামগড় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট খোন্দকার মো. ইখতিয়ার উদ্দিন আরাফাত বলেন, একই সময়ে এবং একই স্থানে দুই দলের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচির কারণে ব্যবসায়ী ও স্থানীয় জনসাধারণের মধ্যে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি এড়াতে ও আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে রামগড় পৌরসভার মাস্টার পাড়া (সিনেমা হল) থেকে রামগড় পৌরভবন পর্যন্ত সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ফৌজদারি কার্যবিধির ১৮৯৮ ধারা মতে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে।

রামগড় থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মিজানুর রহমান জানান, রামগড়ে যেকোনো ধরনের নাশকতা এড়াতে এবং আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় পুলিশ মাঠে থাকবে।

জেএন/কেকে

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...