কাসেমিরো এখন ম্যানইউর

0

ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার কাসেমিরোকে লিভারপুলের বিপক্ষে প্রিমিয়ার লিগে হাই ভোল্টেজ ম্যাচের আগে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের খেলোয়াড় হিসেবে পরিচয় করিয়ে দেয়া হয়েছে।

চার বছরের চুক্তিতে রিয়াল মাদ্রিদ থেকে ৭০ মিলিয়ন ইউরোতে ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে এসেছেন কাসেমিরো।

রিয়াল থেকে আবেগঘন বিদায়ের পর কাসেমিরো বলেছেন বিশ্বের অন্যতম বড় একটি ক্লাবে তিনি যোগ দিয়েছেন। ৩০ বছর বয়সী কাসেমিরো ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে অন্যতম শীর্ষ বেতনের একজন খেলোয়াড় হিসেবে বিবেচিত হচ্ছেন। কিন্তু ব্রাজিলিয়ান তারকা জানিয়েছে এখানে আসার মূল লক্ষ্য শুধুমাত্র অর্থ নয়। এ সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘এখানে যদি শুধুমাত্র অর্থের বিষয়টি জড়িত থাকতো তবে আরো চার/পাঁচ বছর আগেই আমি রিয়াল ছেড়ে আসতে পারতাম। এমনটা যারা মনে করছে তারা ভুল। তারা আমাকে একেবারেই চেনেনা। রিয়াল সবসময়ই আমাকে দারুন সম্মান দিয়েছে। এটা আমার সিদ্ধান্ত, আমার পথ।’

ইউনাইটেডের খেলোয়াড় হিসেবে পরিচয় করিয়ে দেবার পর কাসেমিরো বলেছেন, ‘ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ও প্রিমিয়ার লিগের নতুন চ্যালেঞ্জ শুরু করাটা সত্যিই রোমাঞ্চকর। ক্যারিয়ারে আমি অনেক বড় বড় কোচের সাথে কাজ করেছি। কিন্তু এরিকের সাথে দেখা হবার পর এবং তার পরিকল্পনা জানার পর তার সাথে কাজ করার জন্য মুখিয়ে আছি। আশা করছি নতুন সতীর্থদের সাথে দারুন কিছু সময় কাটাতে পারবো।

মাদ্রিদে দারুন একটি যাত্রা শেষ করে আমি এখানে এসেছি। আগেও আমার মধ্যে ম্যাচ জয়ের যে ধরনের প্রতিশ্রুতি ছিল, ইউনাইটেডেও সেটা অব্যাহত থাকবে। অসাধারন একটি ক্লাবের সমর্থকদের গর্বিত করতে চাই। ইউনাইটেডের ইতিহাস সবারই জানা। সর্মথকদের কাছে এই ক্লাবের অর্থ একেবারেই ভিন্ন। ইউনাইটেডের জার্সি গায়ে প্রতিনিধিত্ব করা সত্যিই সম্মানের। ক্লাবের ভবিষ্যতের সাফল্যে জন্য নিজেকে মেলে ধরতে আমি পুরোপুরি প্রস্তুত।’

২০১৩ সালে সাও পাওলো থেকে রিয়ালে যোগ দেবার পর কাসেমিরো পাঁচটি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ, তিনটি লা লিগা ও একটি কোপা ডেল রে শিরোপা জয় করেছেন। গত মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে তিনি মূল একাদশে খেলেছেন। ফাইনালে লিভারপুলকে পরাজিত করে রিয়াল রেকর্ড ১৪তম চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপা জয়ের কৃতিত্ব দেখিয়েছে। নয় বছরের রিয়াল ক্যারিয়ারে কাসেমিরো ৩৩৬ ম্যাচ খেলেছেন।

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে আসার আগে রিয়াল মাদ্রিদে কাসেমিরোর বিদায় ছিল বেশ আবেগঘন। সোমবার রিয়ালের পক্ষ থেকে তাকে বিদায় জানানো হয়।

কাসেমিরো জানিয়েছেন চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালের পর তিনি এজেন্টের সাথে কথা বলে রিয়ালের অধ্যায় শেষ করার আগ্রহের কথা প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেন, ‘এটি ছিল আমার ক্যারিয়ারের সবচেয়ে কঠিন সিদ্ধান্ত। কিন্তু ভবিষ্যত নিয়ে আমি আশাবাদী ছিলাম। আমি নতুন চ্যালেঞ্জ নিতে চেয়েছিলাম, ভিন্ন একটি লিগ, ভিন্ন একটি দেশ ও ভিন্ন একটি সংষ্কৃতির সাথে পরিচিত হতে চেয়েছিলাম।’

জেএন/কেকে

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...