পটিয়ায় মাকে হত্যা করা ছেলে অস্ত্রসহ গ্রেফতার

0

পটিয়ায় ছেলের গুলিতে মা নিহত হওয়ার ঘটনায় অভিযুক্ত ছেলে মাইনুলকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। এসময় হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত অস্ত্রটি উদ্ধার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৮ আগস্ট) র‌্যাব-৭ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মো. নুরুল আবছার গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, পটিয়ার সাবেক মেয়র শামসুল আলম মাস্টারের স্ত্রী নিজ সন্তানের গুলিতে নিহত হওয়ার ঘটনায় ছেলে মাইনুলকে অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার করা হয়েছে। দুপুর দেড়টায় র‌্যাব-৭ অধিনায়ক লে. কর্নেল এম এ ইউসুফ সংবাদ সম্মেলন করে বিস্তারিত জানবেন।

এর আগে গত মঙ্গলবার দুপুরে পটিয়ায় সন্তান মাইনুলের গুলিতে তার মা ও পটিয়া পৌরসভার সাবেক মেয়র শামসুল আলম মাস্টারের স্ত্রী জেসমিন আক্তার (৫০) নিহত হন। তাদের নিজ বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতের স্বজন ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, শামসুল আলম মাস্টার মারা যাওয়ার পর সম্পত্তি ও ব্যাংকে জমানো টাকা নিয়ে তাদের মধ্যে পারিবারিক কলহ শুরু হয়। এছাড়াও মাইনুল কিছুদিন আগে পরিবারকে না জানিয়ে বিয়ে করেন। এ নিয়ে মায়ের সঙ্গে মনোমালিন্য ছিল মাইনুলের।

মঙ্গলবার সকালে মেয়ে নিপাকে নিয়ে ব্যাংকে যান জেসমিন আক্তার। মাইনুলকে না জানিয়ে বোনকে নিয়ে ব্যাংকে যাওয়ার কথা শুনতে পেয়ে দুপুরের দিকে মায়ের সঙ্গে তর্ক শুরু করেন মাইনুল। এরই একপর্যায়ে মাকে গুলি করেন তিনি। গুরুতর আহত অবস্থায় মা জেসমিন আক্তারকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনায় মঙ্গলবার রাতেই মাইনুলের বোন শায়লা শারমিন নিপা বাদী হয়ে পটিয়া থানায় ভাই মাইনুলকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন।

জেএন/কেকে

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...