বঙ্গমাতা বেঁচে আছেন কোটি মানুষের প্রাণে : ওবায়দুল কাদের

0

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, দুর্দিনে নেতাকর্মীদের আস্থার ঠিকানা ছিলেন বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন নেছা মুজিব। তিনি বেঁচে আছেন কোটি মানুষের প্রাণে।

তিনি বলেন, বঙ্গমাতা শুধু বঙ্গবন্ধুর সহধর্মিণীই ছিলেন না, তিনি ছিলেন বঙ্গবন্ধুর সারাজীবনের সহযোদ্ধা। বঙ্গমাতা একদিকে পরিবার সামলেছেন, অন্যদিকে তিনি দলের দুর্দিনে নেতাকর্মীদের আস্থার ঠিকানা ছিলেন। তিনি মরেননি, তিনি বেঁচে আছেন কোটি মানুষের প্রাণে।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সহধর্মিনী বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন নেছা মুজিবের ৯২তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আজ সোমবার মোহাম্মদপুরের সূচনা কমিউনিটি সেন্টারে ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, বেগম মুজিব শুধু বঙ্গবন্ধুর সহধর্মিণীই ছিলেন না, তিনি ছিলেন বঙ্গবন্ধুর সারাজীবনের সহযোদ্ধা। পর্দার অন্তরাল থেকে সংকটে, সংগ্রামে বঙ্গবন্ধুকে প্রেরণা, শক্তি ও সাহস দিয়েছেন বঙ্গমাতা।

তিনি বলেন, বিশ শতকের অন্যতম সেরা বাঙালি নারী শেখ ফজিলাতুন নেছা মুজিব। বঙ্গবন্ধুর অনুপস্থিতিতে বঙ্গমাতাই এদেশের স্বাধীনতা আন্দোলনের নেপথ্যের অন্যতম কারিগর ছিলেন।

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপির কোনো ভবিষ্যত নেই। তাদের ভবিষ্যৎ অন্ধকার উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, যে দলের এক নম্বর নেতা, ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান দন্ডপ্রাপ্ত এবং বিদেশে পলাতক আসামি, আর রাজনীতি করবে না বলে মুচলেকা দিয়ে লন্ডনে পাড়ি জমিয়েছে। সেই দলের নেতা কে? এই দলের নেতা অর্থপাচারকারী, দন্ডিত পলাতক আসামি, তাদের এক নম্বর নেতা।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘তারা বলে আমরা নাকি বাংলাদেশের ভবিষ্যৎ নষ্ট করেছি। আমি বলি যারা অপরাধীর হাতে, দন্ডিত ব্যক্তির হাতে নেতৃত্ব তুলে দিয়েছেন, তাদের ভবিষ্যৎ অন্ধকার। তাদের কোনো ভবিষ্যৎ নেই। তারা নিজেরাই নিজেদের ভবিষ্যৎ নষ্ট করেছে।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, সাম্প্রদায়িক শক্তিকে সাথে নিয়ে বিএনপি ঐক্য করছে। ঐক্যের নামে তারা বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করবে। তারা দেশে-বিদেশে ষড়যন্ত্রকারীদের নিয়ে বৈঠক করছে। তারা শেখ হাসিনার সরকারকে ক্ষমতা থেকে হটাতে চায়।

জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানো প্রসঙ্গে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, বিশ্ব সংকটের নেতিবাচক প্রভাবে, নিরুপায় হয়ে, বলে কয়ে আমরা মূল্য বাড়িয়েছি। এই মূল্য বৃদ্ধির বাস্তবতা আছে। বিশ্ববাজারে আবার যখন দাম কমে যাবে, আমরাও তখন মূল্য সমন্বয় করব।

আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ বজলুর রহমান।

জেএন/কেকে

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...