রাজা ও কাইয়ার সেঞ্চুরিতে পাত্তা পেল না বাংলাদেশ

0

জিম্বাবুয়ের কাছে টি-টোয়েন্টি সিরিজ হারার পর ওয়ানডে সিরিজও হার দিয়ে শুরু করেছে বাংলাদেশ। ৩০৩ রানের বড় পুঁজি নিয়েও টাইগাররা বল হাতে প্রতিরোধ গড়তে পারেনি স্বাগতিকদের বিরুদ্ধে। এই জয়ে তিন ম্যাচ সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেছে জিম্বাবুয়ে।

হারারেতে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে ৩০৩ রান জড়ো করে বাংলাদেশ। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৮১ রান করেন লিটন দাস, যাকে ইঞ্জুরির কারণে রিটায়ার্ড হার্ট হিসেবে মাঠ ছাড়তে হয়। এছাড়া ৩ বছর পর একাদশে সুযোগ পাওয়া এনামুল হক বিজয় ৭৩, অধিনায়ক তামিম ইকবাল ৬২ ও মুশফিকুর রহিম ৫২ (অপরাজিত) রান করেন।

জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নেমে প্রথম ওভারেই অধিনায়ক রেজিস চাকাভাকে হারায় জিম্বাবুয়ে। দলীয় ৬ রানে সাজঘরে ফেরেন আরেক ওপেনার তারিসাই মুসাকান্দা। ওয়েসলে মেধেভেরেও বেশি সুবিধা করতে পারেননি, ১৯ রান করে তিনি ফেরেন সাজঘরে।

এরপর দলের হাল ধরেন ইনোসেন্ট কাইয়া ও সিকান্দার রাজা। চতুর্থ উইকেটে দুজনে গড়েন ১৯২ রানের মহাকাব্যিক এক পার্টনারশিপ। ১২২ বলে ১১০ রান করে কাইয়া আউট হলেও রাজা দলকে পথ হারাতে দেননি।

লুক জংওয়েকে নিয়ে রাজা শেষদিকে মারকুটে ব্যাটিং শুরু করেন। বাংলাদেশের বোলারদের ওপর চড়াও হন জংওয়েও। ১৯ বলে ২৪ রান করে তিনি বিদায় নিলেও রাজা একেবারে জয় নিয়েই মাঠ ছাড়েন। ১০৯ বলে ৮টি চার ও ৬টি ছক্কা হাঁকিয়ে ১৩৫ রান করে অপরাজিত থাকেন টি-টোয়েন্টি সিরিজের সেরা খেলোয়াড়। জিম্বাবুয়ে জয় পায় ১০ বল ও ৫ উইকেট হাতে রেখেই।

জেএন/কেকে

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...