তদন্তের মাধমে যাচাই-বাছাই করেই মামলা করে দুদক

0

রাষ্ট্রীয় সম্পত্তিতে কেউ যেন নিজের অধিকারের অতিরিক্ত ভোগ করতে না পারে সে বিষয়ে সর্বদা সচেষ্ট থেকে মাঠে কাজ করছে জানিয়ে দুর্নীতি দমন কমিশন(দুদক)’র কমিশনার (অনুসন্ধান) মোহাম্মদ মোজাম্মেল হক খান বলেছেন,বাধা আসলে ক্ষমতাবানদেরও আইনের আওতায় নিয়ে আসতে পিছপা হবে না দুদক

তিনি বলেন, দুর্নীতি দমন কমিশন কোনো মামলা করার ক্ষেত্রে তাড়াহুড়ো করে না, তদন্তের মাধমে সবকিছু যাচাই-বাছাই করে মামলা করা হয়।

আজ বুধবার (৩ আগস্ট) চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের শহীদ বীরোত্তম শাহ আলম অডিটোরিয়ামে দুদকের গণশুনানি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

চট্টগ্রামে প্রায় দুই বছর পর ৪২ সরকারি দপ্তরের বিরুদ্ধে আনা শতাধিক অভিযোগ নিয়ে গণশুনানি করছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

বক্তব্যে তিনি আরো বলেন, দুর্নীতিবাজরা এখন এমন এক আতঙ্কে রয়েছে যে, তারা যেকোনো সময় ধরা পড়বে ও শাস্তির সম্মুখীন হবে।

দুদকের দায়ের করা প্রায় ৭০ শতাংশ মামলায় অপরাধীদের শাস্তির আওতায় আনা হয়েছে। কারণ আমাদের আইনজীবীরা সঠিক তথ্য উপাত্ত আদালত উপস্থাপন করেন। আমরা এই ধারা অব্যাহত রাখার চেষ্টা করছি।

দুদক কমিশনার বলেন, চট্টগ্রাম নগরে অবস্থিত বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের সেবায় সহজলভ্যতা, হয়রানি বা দুর্নীতি বন্ধে এ গণশুনানির আয়োজন করা হয়েছে।

গণশুমানিতে আরো উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার আশরাফ উদ্দিন, মহাপরিচালক দুদক (প্রতিরোধ) একে এম সোহেল, চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ (সিএমপি) কমিশনার কৃষ্ণ পদ রায়, দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি মনোয়ারা হাকিম আলী।

জেএন/পিআর

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...