বঙ্গোপসাগরে মাছ ধরার ২৬ ট্রলারে ডাকাতি

0

পটুয়াখালীর সোনার চরের পূর্ব-দক্ষিণে বঙ্গোপসাগরে সংঘবদ্ধ ডাকাত দলের কবলে পড়েছে অন্তত ২৬টি মাছ ধরার ট্রলার। ডাকাতদল অস্ত্রের মুখে এসব ট্রলারের জেলে ও মাঝিদের জিম্মিকরে তাদের সর্বস্ব লুটে নিয়েছে।

এ সময় ডুবিয়ে দিয়েছে ৯ জেলেসহ একটি ট্রলার। এতে সাগরে ভেসে নিখোঁজ রয়েছে বেশ কয়েকজন জেলে। নিখোঁজ সেই জেলেদের উদ্ধার প্রচেষ্টা চালিয়ে নিমজ্জিত ট্রলারটি উপকূলে আনার চেষ্টা চালাচ্ছে অন্য ট্রলারের জেলেরা।

ডাকাতের কবলে পড়া ট্রলারগুলো পটুয়াখালীর মহিপুর, রাঙ্গাবালী, চরমোন্তাজ ও বরগুনার পাথরঘাটার।

শুক্রবার রাতে পটুয়াখালীর মহিপুর মৎস্য বন্দরে ফিরে ঘটনার শিকার দুই জেলে জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা থেকে হাতিয়া-সন্দ্বীপ থেকে দ্রুতগামী বড় ট্রলারে আসা ২০-২৫ জনের ডাকাত দল অস্ত্রের মুখে ধাওয়া করে একের পর এক ট্রলারগুলো ডাকাতি করে মাছ, জাল, তেলসহ সব মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। এ সময় ডাকাতদের ট্রলারের ধাক্কায় একটি ট্রলার ডুবে যায়।

মহিপুর মৎস্য আড়ৎ মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. রাজু আহমেদ রাজা বলেছেন, নিখোঁজ জেলেদের উদ্ধার, ডাকাতদের দমন ও ইলিশের ভরা মৌসুমে সাগরের নিরাপত্তায় সরকারের সহযোগিতা চেয়েছে মহিপুর মৎস্য আড়ৎ মালিক সমিতি।

ইতোমধ্যে ঘটনার বিষয়ে খোঁজ খবর নেয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন পটুয়াখালীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ( অপরাধ ও প্রশাসন)।

জেএন/পিআর

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...