রামুতে শাশুড়িকে হত্যার পর মাটিচাপা, আটক পুত্রবধূ

0

কক্সবাজারের রামুর মিঠাছড়ি হাজির পাড়ায় শাশুড়িকে হত্যার পর বাড়ির আঙিনায় মাটিচাপা দেওয়ার ঘটনা ঘটেছে। নিহতের নাম মমতাজ বেগম (৬০)।

আজ রোববার বিকেলে বাড়ির পাশে টিউবওয়েলের পাশ থেকে তাঁর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় নিহতের পুত্রবধূকে আটক করেছে পুলিশ। পারিবারিক কলহের জের ধরে এই হত্যার ঘটনা ঘটেছে বলে জানান স্থানীয়রা।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আজ সকালে নিহতের ছেলে বাড়ির পাশে টিউবওয়েলে যান। সেখানে নতুন খোঁড়া মাটি দেখতে পান। অল্প মাটি খুঁড়ে তাঁর মায়ের শাড়ি দেখেন। পরে তিনি বিষয়টি স্থানীয়দের জানান। পরে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দিলে মাটিচাপা অবস্থায় নিহত মমতাজ বেগমের ছয় টুকরো মরদেহ উদ্ধার করে।

এ ঘটনায় নিহতরে পুত্রবধূ রাশেদা বেগমকে (২৫) আটক করেছে পুলিশ। প্রাথমিকভাবে তিনি শাশুড়িকে হত্যার দায় স্বীকার করেছেন বলে জানায় পুলিশ।

পুলিশ আরও জানায়, গতকাল সকালে নিহত মমতাজ বেগমের সঙ্গে তর্কাতর্কির একপর্যায়ে দা দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেন। এরপর মরদেহ টুকরো টুকরো করে বস্তাবন্দী করেন। পরে বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে পাশের টিউবওয়েলের পাশে বস্তাবন্দী করে মরদেহ মাটিচাপা দেন।

এদিকে ঘটনাস্থলে আসেন রামু থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) অরূপ কুমার চৌধুরী জানাম, হত্যাকারী রাশেদা মমতাজ বেগমকে হত্যা করে বাড়ির সামনে টিউবওয়েলের পাশে নরম মাটিতে পুঁতে ফেলে। এরই মধ্যে নিহতের পুত্রবধূকে আটক করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদও চলছে।

জয়নিউজ/পিডি

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...