পাত্রী নির্বাচন মিকার, কে এই রমণী?

0

সঠিক জীবনসঙ্গিনীর খোঁজে বেরিয়েছিলেন মিকা। স্বয়ম্বরা আসর ‘স্বয়ম্বরা-মিকা দি বোটি’-তে পাত্র মিকাকে বরমাল্য পরাতে হলে তার মন জয় করতে হবে। এটাই প্রতিযোগিতার নিয়ম।

আটজন সুন্দরী চেষ্টা করে যাচ্ছিলেন তাদের প্রতিভা দিয়ে মিকার মন জয় করার। প্রতিযোগিতায় অনেকটা এগিয়ে ছিলেন কলকাতার মেয়ে চন্দ্রাণী দাস।

ভারতীয় গণমাধ্যমের খবর, চন্দ্রাণীকে পেছনে ফেলে এগিয়ে যান চণ্ডীগড়ের নীত মহল। ‘ক্ষীর’ খাইয়ে মন জয় করেছেন পাঞ্জাবি গায়কের। পাঞ্জাবিরা যে খাদ্যরসিক হন, একথা অনেকেরই জানা। মিকাও যে সুস্বাদু খাবারের প্রেমে মজবেন না, তা কী করে হয়! মিকার মনের এ গোপন কথা বোধ হয় জানতে পেরেছিলেন চণ্ডীগড়ের রন্ধনপটিয়সী নীত। অনুষ্ঠানের একটি পর্বে নিজের হাতে ক্ষীর বানিয়ে খাওয়ালেন মিকাকে। আর তাতেই বাজিমাত। রসনায় বাসনার শুরু। মিকার মন জয় করে ফেললেন ‘পাঞ্জাব-সুন্দরী’।

সাধরণ অথচ গাম্ভীর্যের ছোঁয়া থাকবে-এমন মেয়েকেই স্ত্রী হিসেবে পেতে চান মিকা। আর এখানেই নাম্বার পেয়েছেন নীত। স্বয়ম্বরে আসার আগে থেকেই মিকার পরিচিত ছিলেন চণ্ডীগড়ের এ মেয়ে। একসঙ্গে কাজও করেছেন। দুজনের ঘনিষ্ঠতা বাড়ে এ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে। আর এখন দর্শকদেরও পছন্দ এ জুটিকে। মিকার স্ত্রী হিসেবে নীতকেই পছন্দ করছেন অনুরাগীরা। এখন অপেক্ষা সেই শুভ দিনটির।

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...