ছয় ভুয়া মানবাধিকার কর্মীকে গণধোলাই: পুলিশে সোপর্দ

0

লক্ষ্মীপুরে একটি হ্যান্ডকাফ ও ৩ টি ছুরিসহ স্থানীয় জনতার হাতে আটক হয়েছে ছয় ভুয়া মানবাধিকার কর্মী। পরে গণধোলাই দিয়ে আটককৃতদের আটকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

মঙ্গলবার (১২ জুলাই) বিকেলে চন্দ্রগঞ্জ থানার যাদৈয়া নামক এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়। আটক ব্যক্তিরা হলেন- ফেনী জেলার বাসিন্দা শ্যামলী আক্তার চাঁদনী, আঞ্জুমা আক্তার, মহি উদ্দিন, নুরনবী, বোরহান উদ্দিন ও মেহেদেী হাছান।

জানা যায়, মাইক্রোবাস যোগে মানবাধিকার কর্মী পরিচয়ে ফেনী জেলার বাসিন্দা শ্যামলীর নেতৃত্বে সোমবার (১১ জুলাই) সকালে স্থানীয় চন্দ্রগঞ্জ আসলাম জমাদার বাড়িতে আসেন ১০ থেকে ১২ জনের একটি দল।

তারা এসে স্থানীয় ইমরান হোসেনের ঘরে প্রবেশ করে তার বোন ও তার (বোনের) প্রবাসী স্বামী জসীমের সঙ্গে পারিবারিক বিরোধ মীমাংসার প্রস্তাব দেন। এরপর তাদের তাড়িয়ে দিলে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে হুমকি দিয়ে চলে যায়।

মঙ্গলবার (১২ জুলাই) দুপুরে দুই নারীসহ ৪ যুবক আবারো মাইক্রোবাস যোগে ওই বাড়িতে আসে। এসময় ওই বাড়ির শাহাদাত হোসেন ও ইমরান হোসেনের সঙ্গে বাকবিতণ্ডার এক পর্যায়ে অতর্কিত হামলা (মারধর) চালায়। এসময় আশে পাশের লোকজন এসে ভুয়া মানবাধিকার কর্মীদের গণধোলাই দেন।

তাদের কাছ থেকে একটি হ্যান্ডকাফ ও ৩টি ছুরি উদ্ধার করা হয়। পরে পুলিশে খবর দিলে পুলিশ এসে ঘটনাস্থল থেকে তাদের আটক করে থানায় নিয়ে যান।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে চন্দ্রগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোসলেহ্ উদ্দিন জানান, ছয় জনকে আটক করা হয়েছে, মামলার প্রস্তুতি চলছে।

জেএন/পিআর

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...