আসল র‍্যাবের হাতে ধরা প্রতারক র‍্যাব চক্র

0

নগরের বায়েজিদ থানাধীন এলাকা থেকে প্রতারক চক্রের মূলহোতাসহ ৬ সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। এ সময় প্রতারণার ৭০ হাজার টাকাও উদ্ধার করা হয়েছে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো- মো. রুবেল হোসেন, মো. মানিক হোসেন (৩৮), মো. নজরুল ইসলাম (৪৫), মো. মিজানুর রহমান (৩৪), মো. নীরব (২১) ও আবু তৈয়ব সিদ্দিকী ওরফে মিঠু (৪৯)।

র‌্যাব জানায়, গত ২৬ জুন বিকালে ইদ্রিস পাটোয়ারী নামে একব্যক্তিকে জাল দলিল স্ট্যাম্প মজুত এবং বিক্রির অপরাধে আটক করা হয়। পরে রুবেল নামে একব্যক্তি র‌্যাব পরিচয় দিয়ে ইদ্রিসের স্ত্রীর মোবাইলে কল করে। তারা তার স্বামীকে ছেড়ে দেওয়ার জন্য অফিস খরচ ও স্যারের জন্য ৫ লাখ টাকা দিতে বলে। তার স্ত্রী এতোটাকা দিতে পারবে না বললে পরে ৭০ হাজার টাকায় রাজি হন। পরে তিনি বিকাশের মাধ্যমে তাদের ৭০ হাজার টাকা পাঠান। টাকা পাঠানোর পরও বাসায় না ফিরলে থানায় খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন তার স্বামীর নামে জাল দলিল স্ট্যাম্প রাখার জন্য মামলা হয়েছে। এক পর্যায়ে তিনি জানতে পারেন রুবেল একজন সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্রের সক্রিয় সদস্য। এছাড়া তার সহযোগীরা সংঘবদ্ধভাবে বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন লোকের কাছে আইন-শৃংখলা রক্ষা বাহিনী ও র‌্যাব সদস্য হিসেবে মিথ্যা পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন কাজ করে দেওয়ার নাম করে বিভিন্ন অজুহাতে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা আদায় করে থাকে।

র‌্যাব-৭ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মো. নুরুল আবছার বলেন, বিষয়টি অনুসন্ধান করে ঘটনার সত্যতা পাওয়া যায়। এমন তথ্যের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার (৩০ জুন) বায়েজিদ থানা এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে প্রতারক চক্রের মূলহোতা রুবেল হোসেনসহ চক্রের ৬ সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারদের সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

জেএন/এমআর

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...