মারাইংতং পাহাড়ে রাতযাপন নিষিদ্ধ

0

অপরূপ সৌন্দর্যের লীলাভূমি বান্দরবানের মারাইংতং পাহাড়ে পর্যটকদের রাতযাপন নিষিদ্ধ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৩০ জুন) আলীকদম উপজেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির সিদ্ধান্তের আলোকে জাদী ব্যবস্থাপনা কমিটি এ ঘোষণা দেয়।

গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টার পর পর্যটক অবস্থান নিষিদ্ধ করে সাইনবোর্ড ঝুলিয়ে দিয়েছে এবং গতকাল থেকে এ নিষেধাজ্ঞা কার্যকর করা হচ্ছে। এ ঘোষণা শুনে পর্যটকরা দুপুরের মধ্যেই ফিরে গেছেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে জাদী ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য অংশৈ থোয়াই মারমা বলেন, উপজেলা প্রশাসনের অনুরোধে ও পর্যটকদের নিরাপত্তার স্বার্থেই এ ব্যবস্থা নিতে হয়েছে। সব দর্শনার্থীকে সকাল ৬টা থেকে বিকেল ৫টার মধ্যে স্পট ভ্রমণ শেষ করতে হবে এবং ৬টার আগে অবশ্যই তীর্থস্থান ত্যাগ করতে হবে।

এমনিতেই ভ্রমণপিপাসু মানুষের কাছে আলীকদম অনন্য এক স্থান। নিষেধাজ্ঞার পর এখন থেকে বান্দরবানের মারাইংতং পাহাড়ে আসতে হবে দিনের আলোয়।

জানা যায়, বান্দরবানের আলীকদম উপজেলা সদর থেকে প্রায় ১৫ কিলোমিটার দূরে ১ হাজার ৬৪০ ফুট উচ্চতার মারাইংতং পাহাড় চূড়ায় বিশাল সমতল ভূমিতে বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের একটি জাদী (প্রার্থনা ঘর) রয়েছে। এ কারণে মনোরম এই পাহাড়চূড়াটি পর্যটকদের কাছে দিন দিন আকর্ষণীয় হয়ে ওঠে।

দেশি-বিদেশি পর্যটকদের পদচারণে মুখর হয়ে ওঠে এই স্পটটি। পর্যটকরাও তাঁবু টানিয়ে রাতযাপন শুরু করেন। এতে দিন দিন পর্যটক বাড়ায় এবং নানা অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা সৃষ্টির পর পাহাড়চূড়ায় সন্ধ্যার পর পর্যটকদের ভ্রমণ ও অবস্থান নিষিদ্ধ করে জাদী ব্যবস্থাপনা কমিটি।

আলীকদম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মেহরুবা ইসলাম জানান, মারাইংতং পাহাড়ে ভ্রমণে এসে প্রচুর পর্যটক রাতে অবস্থান করেন। অনেক পর্যটক রাতে নেশাজাতীয় দ্রব্য পান করে মারামারি করেছেন। এতে অনেকে আহত হয়েছেন। এ কারণে এ সিদ্ধান্ত।

জেএন/এমআর

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...