সীতাকুণ্ডে যুবলীগ কর্মী খুন

0

সীতাকুণ্ডে সন্ত্রাসী হামলায় মমিনুল হক মামুন (৪৫) নামের এক যুবলীগ কর্মী নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছে তার ছেলে আলী হোসেন সবুজ (২৬)।

বুধবার উপজেলার ৪নং মুরাদপুর ইউনিয়নের ফকিরহাটস্থ বাংলাবাজার এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। নিহত মমিনুল হক মুরাদপুর ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের বর্তমান মেম্বার মো. আকবরের বড় ভাই ও মৃত ইমাম শরীফের ছেলে।

সূত্রে জানা যায়, বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে ফকিরহাট গরুর বাজার থেকে বাড়ি ফিরছিলেন মমিনুল হক ও তার ছেলে সবুজ। মাঝ রাস্তায় হঠাৎ তিনটি সিএনজি থেকে নেমে সন্ত্রাসীদের একটি দল ছুরি, কিরিচ দিয়ে মমিনুল হকের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। এ সময় বাবাকে বাঁচাতে এগিয়ে আসে ছেলে সবুজ। তখন সন্ত্রাসীরা তাকেও ছুরিকাঘাতে মারাত্মক আহত করে। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (চমেক) নিয়ে যায়। কিন্তু যাওয়ার পথেই পিতা মমিনুল হকের মৃত্যু হয়। হাসপাতালে পৌঁছালে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ছেলে সবুজ মুমূর্ষ অবস্থায় বর্তমানে চমেকে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

নিহতের ভাই ইউপি মেম্বার আকবর হোসেন বলেন, সন্ত্রাসীরা তিনটি সিএনজি করে এসে অতর্কিত হামলা চালিয়ে পৌর সদরের দিকে পালিয়ে যায়। আমার ভাই যুবলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত ও পেশায় একজন কৃষক। তার সাথে কারো শত্রুতা থাকার কথা না। এটা পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড।

এব্যাপারে সীতাকুণ্ড মডেল থানার ওসি আবুল কালাম আজাদ বলেন, আমরা ঘটনাস্থলে রয়েছি। ঘটনার কারণ নিশ্চিত করে কিছু বলা যাচ্ছেনা। ঘটনার তদন্ত চলছে।

জেএন/এমআর

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...