চলাচলের পথে সীমানা প্রাচীর নির্মাণ : অবরুদ্ধ ২ পরিবার

পুলিশি হস্তক্ষেপে মুক্ত/সমাধানে বৈঠক

0

চট্টগ্রামের মিরসরাইতে রাতের আঁধারে চলাচলের পথে সীমানা প্রাচীর নির্মাণ করে দুই পরিবারের সদস্যদের অবরুদ্ধ করে রাখার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

খবর পেয়ে মিরসরাই থানা পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে পৌছে অবৈধভাবে গড়ে তোলা ওই সীমানা প্রাচীর ভেঙ্গে অবরূদ্ধ দুই পরিবারের সদস্যদের চলাচলের পথ উন্মুক্ত করেন।

মঙ্গলবার ( ২১ জুন) রাতে উপজেলার ১২ নং খৈয়াছরা ইউনিয়নের মসজিদিয়া ছরারকুল গ্রামে এই ঘটনা ঘটেছে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, ছরারকুল গ্রামের মনকাজি ভুঁইয়া বাড়ির কাজল রেখা ও মো. ভাসানীর ঘরের সামনে চলাচলের জন্য পথ না রেখে দেয়াল নির্মাণ করেছেন প্রবাসী মোশারফের মেয়ে সানজিদা।

এতে করে আটকা পড়েছে ওই বাড়িতে বসবাস করা দুটি পরিবার। কেউ অসুস্থ হলে হাসপাতালে যাবে বা মারা গেলে লাশ নিয়ে বের হওয়ার কোন পথও রাখেনি তারা।

এ বিষয়ে ভুক্তভোগি কাজল রেখা অভিযোগ করেন, মঙ্গলবার বিকেলে আমাদের ঘরের পাশে চলাচলের পথ বন্ধ করে মোশারফের মেয়ে সানজিদা সন্ত্রাসী ও হিজড়া (তৃতীয় লিঙ্গের মানুষ) ভাড়া করে দেয়াল নির্মাণ করছিলো। এসময় বাঁধা দিলে আমার ভাইয়ের ছেলে ভাসানী ও তার স্ত্রী সাহানাকে মারধর করে।

এই বিষয়ে মোশারফের মেয়ে সানজিদা আক্তার বলেন, আমাদের জায়গায় আমরা সীমানা দিয়েছি। তাদের জন্য জায়গার পশ্চিম অংশে পুকুর পাড়ে চলাচলের জায়গা রেখেছি।

এই বিষয়ে মিরসরাই থানার অফিসার ইনচার্জ মো. কবির হোসেন বলেন, ঘটনাস্থলে গিয়ে স্থানীয় লোকজনকে ও উভয় পক্ষকে নিয়ে আলোচনার প্রেক্ষিতে সানজিদা তার ভুল বুঝতে পারেন এবং সীমানা প্রাচির ভেঙ্গে চলাচলের পথ উন্মুক্ত করে দেন।

বুধবার সন্ধ্যা ৬ টায় উভয় পক্ষের ঘটনার বিবরণ শুনে স্থানীয় জনপ্রতিনিধির মতামতের ভিত্তিতে সৃষ্ট জটিলতা নিরসনের চেষ্টা করছি।

জেএন/টিটি

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...